বড় বোনকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে ছোট বোনকে ধর্ষণ যুবলীগ নেতার

0
924

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলায় কিশোরীকে ধর্ষণের পর ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় কামরুল হাসান কামাল নামে এক যুবলীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

রোববার দুপুরে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে পাঠানো হয়। আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়ে ধর্ষণ কথা স্বীকার করেছেন ওই যুবলীগ নেতা। পরে তার রিমান্ড নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত, মেহ-প্রমেহ) সমাধানে ‘নাইট কিং’ ও ‘নাইট কিং গোল্ড’ কার্যকরী। বাংলাদেশের যে কোনো জেলা বা উপজেলায় কুরিয়ার সার্ভিসযোগে ‘নাইট কিং’ পেতে যোগাযোগ করুন :
হাকীম মিজানুর রহমান
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত) 01762240650, 01834880825
এছাড়াও শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

এর আগে শনিবার কিশোরীর বাবা থানায় মামলা করলে কামালকে গ্রেফতার করে পুলিশ। কামাল ঘিওর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ঘিওর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল ইসলাম।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, কিছুদিন আগে কিশোরীর বড় বোনকে বিয়ের প্রস্তাব দেন কামাল। পরে কিশোরীর পরিবারের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। সেই সূত্রে ওই কিশোরীকে বিভিন্ন স্থানে বেড়াতে নিয়ে যেতেন কামাল।

দুই মাস আগে কামাল কিশোরীকে নিয়ে ঢাকায় বেড়াতে যান। সেখানে একটি হোটেলে ওঠেন তারা। হোটেল রুমে কামাল ভয় দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ করেন এবং ধর্ষণের ছবি ভিডিও করেন। পরে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ করতেন।

মামলার এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়া ভিডিওটি কিছুদিন আগে দেখতে পান কিশোরীর বাবা। শনিবার এ ঘটনায় ঘিওর থানায় বাদী হয়ে মামলা করেন তিনি।

প্রকাশিত : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, রোববার

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর/

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
388 জন পড়েছেন