শাহরাস্তিতে অবৈধ ড্রেজারে বালি উত্তোলন : হুমকিতে আবাদি জমি সড়ক ও বাড়িঘর

0
9

মোঃ জামাল হোসেন, শাহরাস্তি প্রতিনিধি :
চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন হুমকির মুখে আবাদি জমি, সড়ক ও বাড়িঘর। নিয়ম নীতি তোয়াক্কা না করে আবাদী জমিতে ড্রেজার বসিয়ে দিয়ে বালি উত্তোলন করার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে।

http://picasion.com/

অভিযোগে জানা যায় উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার মধ্যে আবাদী জমিতে ড্রেজার দিয়ে বালি উত্তোলন করে লক্ষ লক্ষ টাকা বিক্রি করে অর্থ উপার্জন করছে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যক্তিরা ও ড্রেজার মালিকরা।

ডায়াবেটিস প্রতিরোধ ও প্রতিকারে সম্পূর্ণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ামুক্ত ভেষজ ঔষধ পেতে যোগাযাগ করুন- হাকীম মিজানুর রহমান : 0162-240650, 01777988889, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, চাঁদপুর। যোগাযোগ : সকাল দশটা হতে রাত দশটা। নামাজের সময় ব্যতীত। এছাড়াও যৌ*ন সমস্যা, শ্বেতী রোগ, ডায়াবেটিস, অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা), হার্টের ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

উপজেলার টামটা – উত্তর ও দক্ষিণ, চিতোষী পশ্চিম ও চিতোষী পূর্ব এবং সুচীপাড়া উত্তর ও দক্ষিণ ইউনিয়নের আবাদী জমিতে এক শ্রেনী ড্রেজার মালিক ড্রেজার বসিয়ে বালি উত্তোলন করছে। এতে করে কৃষি জমিন ধংসের সম্মুখীন হচ্ছে।

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা জানায় স্থানীয় এক শ্রেণী প্রভাবশালী কৃষক তার জমিতে ড্রেজার বসাইয়ে বালি বিক্রি করে এলাকার পুকুর ডোবা ও সরকারী খাল ভরাট করে যাচ্ছে। এতে স্থানীয় প্রশাসন জেনে শুনে ও নিরব ভূমিকা পালন করছে। যেকোন মুহূর্তে সংখ্যালঘুদের বাড়ি তলিয়ে যাওয়ায় সম্ভাবনা রয়েছে। উপজেলাতে প্রায় ১ শতাধিক ড্রেজার দিয়ে অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলন করছে। এশাসন নিরব।

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের বাসিন্দারা ইউনিয়ন সহকারী (ভূমি) কর্মকর্তাদেরকে ড্রেজার সংক্রান্ত অভিযোগ করা হলো কিন্তু কোনো প্রতিকার পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিরিন আক্তার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) উম্মে হাবীবা মিরার সাথে ড্রেজার সংক্রান্ত আলাপ কালে তিনি জানান, সহসা অবৈধ ড্রেজার মালিকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অপর দিকে ভূমি মন্ত্রণালয়ে অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলন ও ড্রেজার সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্তে¡ও ড্রেজার জব্দ এবং পঞ্চাশ থেকে সর্বঃ উর্ধ ২ লক্ষ টাকা জরিমানা করার এখতিয়ার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের রয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসীর সরকারের প্রতি দাবী অবৈধ ড্রেজার বন্ধ করা না হলে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে কৃষি আবাদি জমি ধ্বংসের মুখে পড়তে পারে। তাই উল্লেখিত ড্রেজার বন্ধ ও জব্দ করার জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানান।

প্রকাশিত : ০২ অক্টোবর ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর/

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
63 জন পড়েছেন
http://picasion.com/