বরজ

হাইমচরে বুলবুল কেড়ে নিল ৩শ’ পান বরজ

 

নিজস্ব প্রতিনিধি :
হাইমচরে ঘূর্নিঝড় বুলবুলের তীব্র বাতাস কেড়ে নিয়েছে বাচ্চু শাহের ৩শত পানের বোরজ। পানের বোরজ গুলো বিধ্বস্ত হওয়ায় পান চাষী বাচ্চু শাহের চোখে মুখে দেখা দিয়েছে হতাশা।

স্বরজমিনে গিয়ে দেখা যায় ৩নং আলগী দক্ষিন ইউনিয়নের পূর্বচর গ্রামের মৃত হাতেম শাহের ছেলে বাচ্চু শাহ । তিনি পুরনো একজন পান চাষী, এ পানের বোরজই ছিল তার সম্বল। ৫৯১ দাগের ১৭৬৭ বিএসএসে প্রায় ৩৪ শতাংশ জমিনের উপরে থাকা পানের বোরজগুলো মাটিতে লুটিয়ে আছে। পানের বোরজগুলো হারিয়ে হতবাক হয়ে আছেন তিনি।

স্থানীয় লোকজনের সাথে আলাপকালে তার জানান, গত শনিবার বিকেল ৩ টার সময় হঠাৎ করে ঘূর্নিঝড়ে কবলে পড়ে বাচ্চু শাহের পানের বোরজ গুলো মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পান চাষী বাচ্চু শাহের এ পানের বোরজগুলো অনেক বছর ধরেই চাষবাস করে আসছেন। বুলবুল নামক এ ঘূর্নিঝড় তার এ পানের বেরজগুলো বিধ্বস্ত করায় তিনি এখন কষ্টের জীবনযাপন করছেন।

তার এ বোরজ নতুনকরে নির্মান করা ছাড়া আর কোন উপায় নেই। আমরা এলাকাবাসী এ পুরানো পানচাষীকে ঘুরে দাড়াতে হাইমচর উপজেলা প্রশাসন সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে তার পাশে থাকার জন্য অনুরোধ করছি।

এ ব্যাপারে পানচাষী বাচ্চু শাহ জানান, আমার অনেক কষ্টের ফসল এ পানের বোরজ। এ বোরজের সাথে জড়িয়ে আছে আমার পরিবারের লোকজন সহ ৫ শ্রমিকে পরিবার। আমার বিধ্বস্ত হওয়া পানের বোরজের মূল্য অনুমানিক ৫লাখ টাকা। যা নতুন করে নির্মান করতে ১ থেকে দেড় লাখ টাকা প্রয়োজন হবে। আমি আমার পুরনো এ পানের বোরজকে দাড় করাতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটওয়ারী ও উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করছি।

প্রকাশিত : ১১ নভেম্বর ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার :

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর/সাহেদ হোসেন দিপু

502 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন