dc chandpur

চাঁদপুরের  দু’টি সরকারি স্কুলের ৪র্থ ও ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২৬৬৭ পরীক্ষার্থী

গোলাম মোস্তফা :

চাঁদপুর জেলা সদরের  ঐতিহ্যবাহী শীর্ষ সরকারি দুটি উচ্চ বিদ্যালয় যথাক্রমে   হাসান আলী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও মাতৃপীঠ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দু’ টি শ্রেণীর মোট  ৪৮০টি  আসনের ভতি পরীক্ষার জন্য ২ হাজার ৮’শ ২৫ টি আবেদন  করা হয়। কিন্তু আবেদনের প্রেক্ষিতে ভতি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ হাজার ৭’শ ৯৫ জন ছাত্র – ছাএী।  এ দুটি বিদ্যালয়ের দুটি শ্রেনীর দুটি করে সীফটের মোট আসন রয়েছে ৪৮০টি। এ আসনের বিপরীতে গড়ে প্রতিটি আসেনর বিপরীতে ৬ জন ছাএ – ছাএী কে এ ভতি যুদ্ধে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে হয়েছে।

গতকাল বহস্পতিবার (১৯ ডিসম্বর) সকাল ১০টা থেকে  দুপুর ১২টা পর্যন্ত শহরের  ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  এই ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠান গুলো হচ্ছে চাঁদপুর হাসান আলী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, মাতৃপীঠ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ ও হাসান আলী সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়।

হাসান আলী সরকারি উচ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেনী পযন্ত দুটি সীফটে ক্লাস চলে। প্রথম সীফট মনিং ও ২য় সীফট ডে নামে  অবহিত। এ দুটি সীফটে মোট ১০১২ ছাত্র ভতি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে উক্ত বিদ্যালয় কেন্দ্রে ও চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ কেন্দ্রে  মনিং সীফটে ৫৪৭ জন ও ডে সীফটে ৪৬৫ জন ছাএ ভতি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে।

মাতৃপীঠ সরকারি বালিকা উচ বিদ্যালয়ের একই নিয়মে দুটি শ্রেণীর দুটি সীফটে  ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।মাতৃপীঠ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়  ও হাসান আলী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে  মর্নিং সীফটে পরীক্ষায়  ৯৩৪জন ছাএী এবং ডে সীফটে ৭২১ জন ছাএী ভতি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে।

দু’টি বিদ্যালয়র ভর্তি ফরম ২হাজার ৮শ’ ২৫টি বিক্রি হলও পরীক্ষা অংশগ্রহন করনি ১৫৮জন শিক্ষাথর্ী।

এ দুটি বিদ্যালয়ের   ভর্তি পরীক্ষা সফল ভাবে সম্পূর্ণ করার জন্য দুটি প্রতিষ্ঠানের অভিবাবক হিসেবে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।    এদিকে পরীক্ষাচলাকালীন সময় হাসান আলী  সরকারি উচ বিদ্যালয় কেন্দ্র ও মাতৃপীঠ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র  পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ  মাজদুর রহমান খান। এ সময় অতিরিক্ত জলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) দাউদ হাসন চৌধুরী ,  প্রেসক্লাবের সভাপতি শহীদ পাটওয়ারী ও হাসান আলী সরকারি উচ বিদ্যালয়র প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ হোসেন  উপস্তিত ছিলেন।

এছাড়াও  মাতৃপীঠ সরকারি বালিকা উচ বিদ্যালয় কেন্দ্র  পরিদর্শন করেন সদর উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কানিজ ফাতমাসহ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রটগণ।

৪টি কেন্দ্রেই  সুশৃঙ্খল পরিবেশের  মধ্য দিয়ে  ভর্তি পরীক্ষা সম্পন হয়। তবে  পরীক্ষায় অংশ নয়া শিক্ষাথীদের  অভিভাবকদের ভীড় ছিলো  কেন্দ্র  গুলোর সামনে প্রচন্ড, যে কারণে শহরব্যাপী যানজটের সৃষ্টি হয়।

বিদ্যালয়গুলোর  সূত্রে  জানাগেছে , আজ অথ্যাৎ ১৯ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার।  রাত ১০টার মধ্য ফলাফল প্রকাশ হবে।

প্রকাশিত : ২০ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার :

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর

 

হাসান আলী সরকারি উচ্চ  বিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্র  পরিদর্শন করছেন জেলা প্রশাসক মোঃ  মাজদুর রহমান খান।

333 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন