কম্বল পেয়ে খুশি প্রতিবন্ধী শিশুরা

0
18

রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃ

মুখে কথা না বলতে পেরেও চোখের ইশারায় কম্বল পেলেন প্রতিবন্ধী শিশুরা। মিট মিট চোখে তাকিয়ে আছে একটি ছোট্ট শিশু মুখে প্রাণবন্ত হাসি, লাইনে দাঁড়িয়ে কম্বল নিবে এমন অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকা আজ তার কাছে আনন্দের।

http://picasion.com/

চোঁখের ইশারা এবং হাতের ইশারাতেই বোঝা যায় বাকশক্তি না থাকলেও লাইনে দাঁড়িয়ে তাদের মুখের মিষ্টি হাসি প্রমাণ করছে কম্বল পাওয়ার আনন্দ।

এই কনকনে শীতের কষ্টকে সহজেই মুকাবেলা করতে পারবে। লাইনে দাঁড়িয়ে নিঃপাপ প্রতিবন্ধী শিশুদের কম্বল নেওয়া অপর দিকে বিতরণ করছেন ঠাকুরগাঁও জেলার রানীশংকৈল উপজেলার আলী আকবর মেমোরিয়াল স্কুলের প্রতিষ্ঠা সাবেক সংরক্ষিত আসনের এমপি সেলিনা জাহান লিটা। তিনি তার বাবার নামের প্রতিষ্ঠানটি তিলে তিলে গড়ে তুলছেন নিজ অর্থায়নে। এর মধ্যেই প্রতিষ্ঠান ঘর নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে, শিক্ষার্থী ও শিক্ষক চোখে পড়ার মতোই দেখা গেছে।

সমগ্র দেশের মধ্যে উত্তরবঙ্গের প্রচন্ড শীতে কাবু যখন রাণীশংকৈলবাসীও ঠিক সেই মুহুর্তে ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় ১৮ জানুয়ারি শনিবার দুপুরে, আলী আকবর এমপি ক্রীড়া একাডেমির উদ্যোগে একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য- সেলিনা জাহান লিটা রানীশংকৈল প্রতিবন্ধী স্কুল চত্বরে প্রতিবন্ধী ছাত্র-ছাত্রী, একাডেমির খেলোয়ার ও কিছু গরীর অসহায় মানুষের মাঝে শতাধিক শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সস্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও দৈনিক ইত্তেফাক প্রতিনিধি অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম, প্রেসক্লাব সভাপতি ফারুক আহাম্মদ, আ’লীগ নেতা ও প্রধান শিক্ষক বাবর আলী, যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তা, সেচ্ছাসেবকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকারিয়া হাবিব ডন, একাডেমির ক্রীড়া সম্পাদক ও কোচার মানিক হোসেন, প্রতিবন্ধী স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রাকিব হাসান প্রমুখ। কম্বল পেয়ে শীতার্তরা অনেক উপকৃত হয়েছে বলে জানান জৈনেক প্রতিবন্ধী অভিভাবক।

এ ব্যপারে এমপি লিটা বলেন, ‘এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে, আমি প্রতিবন্ধী ও গরীর মানুষের জন্য দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছি এবং আজীবন এ ধারা অব্যাহত থাকবে ইনশাল্লাহ’।

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
92 জন পড়েছেন
http://picasion.com/