চাঁদপুরে কলেজ ছাত্রী অপহরণের চেষ্টা, আটক যুবকের পলায়ন

চাঁদপুর রিপোর্ট ডেস্ক :

চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের এক ছাত্রীকে অপহরণ করার চেষ্টার সময় অপহরণকারী যুবককে পুলিশ আটক করলেও সে পালিয়ে যায়।

আসামীকে চাঁদপুর মডেল থানা প্রাঙ্গণে নেওয়ার পরেই পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টায় চাঁদপুর মডেল থানা প্রাঙ্গণে।
চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের জনৈক ছাত্রীকে বেশ কিছুদিন ধরে আসা-যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করার ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা জিয়া বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করে।
বৃহস্পতিবার ওই কলেজ ছাত্রী তার অসুস্থ স্বজনকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে দেখতে আসলে খবর পেয়ে লম্পট বখাটে মামুন ওই কলেজ ছাত্রীকে অপহরণ করার জন্যে হাত ধরে টেনে নেওয়ার চেষ্টা চালায়।
এসময় তার পরিবারের লোকজন এসে কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করে এবং পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানার এসআই লোকমান হোসেন হাসপাতালে গিয়ে মামুনকে আটক করে থানা প্রাঙ্গণে নিয়ে আসে।
এ সময় মামুনের হাতে হ্যান্ডকাপ না থাকায় সে পুলিশের হাত থেকে ছুটে গিয়ে চাঁদপুর পৌরসভার পেছন দিয়ে দেওয়াল টপকে পালিয়ে যায়। পেছনে দৌড়ে গিয়েও পুলিশ তাকে ধরতে পারেনি।
পলাতক আসামি মামুন চাঁদপুর শহরের রহমতপুর কলোনি এলাকার ভাড়াটিয়া বাসিন্দা। এই ঘটনায় কলেজ ছাত্রীর বাবা জিয়া জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ বখাটে মামুন আমার মেয়েকে উত্ত্যক্ত করে আসছিলো।
থানায় অভিযোগ করার পরে তাকে ডেকে এনে মুচলেকা রেখে ছেড়ে দেওয়া হয়। পরে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আমার মেয়েকে হাসপাতালের সামনে থেকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।
এ ঘটনায় মডেল থানার এসআই লোকমান জানান, আমি হাসপাতালে অন্য কাজে যাই। তখন দেখতে পাই ভেতরে মেয়ে ও ছেলের বাবার সাথে কথা কাটাকাটি হচ্ছে।
আমি সেখান থেকে তাদেরকে ডেকে এনে শান্ত করে দেই। ছেলে মামুনকে ডেকে বলে দেই, তুই থানায় মুচলেকা দিয়েছিস যে, মেয়েকে আর বিরক্ত করবি না, এ কথা বলে তাকে শাসিয়ে চলে যেতে বলি। সে এ পথ থেকে সরে যাবে বলে চলে যায়।
এ ব্যাপারে চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাছিম উদ্দিন মুঠো ফোনে বলেন, এ ধরনের কোনো ঘটনা আমার জানা নেই। তবে বিষয়টি জেনে দেখবো।

প্রকাশিত :৩১ জানুয়ারি ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার :

চাঁদপুর রিপোর্ট : এস এস

100 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়