Accident

রাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে গেল তিন প্রাণ

নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন। বুধবার (৮ জানুয়ারি) রাত ১০টা থেকে রাত ১২টার মধ্যে দুটি পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এ নিহতের ঘটনা ঘটে। এতে আরও দু’জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

নিহতরা হলেন- সলিমপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মোহাম্মদ রফিক হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ এবং মীরসরাইয়ের ডুমখালী গ্রামের মেজবাহ উদ্দিন। এদিকে পৃথক আরেক সড়ক দুর্ঘটনায় এক নারী নিহত হয়েছেন, তার পরিচয় পাওয়া যায়নি।

দুর্ঘটনার পরে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী রাত সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত এক ঘণ্টা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। এতে মহাসড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। এসময় ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ি, বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার পুলিশ গিয়ে এলাকাবাসীকে বুঝিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়ার চেষ্টা করেন। প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টার পরে রাত সাড়ে ১১টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

কুমিরা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত পরিদর্শক মো. সাইদুর ইসলাম জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের গুল আহমেদ জুটমিল এলাকায় প্রাইভেট কার ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে সীতাকুণ্ড জেনারেল হাসপাতাল ভর্তি করান। পরে সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে সীতাকুণ্ড কালুশাহ্ মাজারের সামনে কাভার্ড ভ্যানের চাপায় মধ্যবয়সী এক নারী নিহত হন বলে নিশ্চিত করেছেন বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল আউয়াল। তিনি জানান, দ্রুতগামী একটি কাভার্ড ভ্যান চাপায় এক নারী নিহত হয়েছেন। ওই নারীর বয়স আনুমানিক ৫০ বছর। তিনি সীতাকুণ্ডের বিভিন্ন এলাকায় ভিক্ষা করতেন বলে জানতে পেরেছি। তবে তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

 55 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন