‘পৌর নাগরিক হিসেবে তাদের প্রাপ্য সঠিক সেবা পৌঁছে সেবক হিসেবে কাজ করতে চাই’

গোলাম মোস্তফা :

আসন্ন চাঁদপুর পৌর সভার নিবাচনের সময় যতই ঘনিয়ে আসছে, প্রতি ওয়াডে কাউন্সিলর পদে প্রাথীর সংখ্যা ততই বাড়ছে। তবে এ সকল সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রাথীরা হুট করেই তাদের প্রাথীতা ঘোষণা করেননি। তাঁরা ওয়াড বাসীর প্রতিনিধি হবেন, এমন প্রত্যাশা নিয়ে দীর্ঘ কয়েক বছর পূর্ব থেকে ওয়াডের জনগণের সুখ দুঃখে পাশে থেকেছেন।

ওয়ার্ডের জনগণের ব্যক্তিগত, সমষ্টিগত বা সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ধমীয়, শিক্ষা ও ক্রীড়া সহ বিভিন্ন কমকান্ডে, উপস্থিতি, এমনকি নিজের থেকে অথ খরচ করে ওয়ার্ডবাসীর মন জয় করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। দীর্ঘ কয়েক বছর যাবত ৮নং ওয়াড বাসীর পাশে থেকে এমন সেবা দিয়ে আসছেন সাবেক ছাত্রনেতা বর্তমান যুব নেতা ও যুব সমাজের পরিচিত শুভাশিষ ঘোষ ( শ্রীগুরু)

আসন্ন চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হতে সম্প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এ ধারাবাহিকতায় ইতিমধ্যে তিনি তার এলাকাবাসীসহ সকলের সাথে এই বিষয়ে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করে চলছেন। প্রতিদিনই উক্ত ওয়ার্ডের পাড়া-মহল্লায় গিয়ে ওয়ার্ডবাসীর খোঁজখবর নিচ্ছেন এবং তাদের সাথে কুশল বিনিময়ের মাধ্যমে তার প্রার্থিতার বিষয়ে চূড়ান্তভাবে ঘোষণা করে মাঠে নেমে পড়েছেন

আসন্ন চাঁদপুর পৌর নিবাচনে ৮নংওয়াডের কাউন্সিলর প্রাথীতার বিষয়ে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একজন সৈনিক হিসেবে জনগণের সেবার ব্রত নিয়ে ছাএলীগের রাজনীতির মাধ্যমে আমার এলাকাবাসীর সেবায় যুক্ত হয়েছি। সে থেকে আজো এলাকা বাসীর সুখ দুঃখের একজন সাথী হিসেবে পাশে ছিলাম এবং আমৃত্যু থাকবো।

তিনি আরো বলেন, শুধু এ ওয়াডের জনগণ নয়, পুরো শহরে আমি একজন রাজনৈতিক কমী হিসেবে শহর ব্যাপী আমাকে চিনে ও জানে। আমার পূর্ব পুরুষদের থেকে বংশানুক্রমে আমার জন্ম এ শহরে। ছাত্র জীবন থেকে সমাজের কল্যানকর কাজ করে আসছি। কেউ কোনো অভিযোগে অভিযুক্ত করতে পারবে না। কারণ কোনো অন্যায় অপরাধদের সাথে জড়িত ছিলাম না। কোনো অপরাধীর পক্ষে ও কাজ করিনি। শহরের মুল নাভী কাঠিতে বসবাস করার সমাজের মানুষের

চোখে অন্যায় দেখা যাবে, এ ধরনের কাজে বিগত দিনে ও ছিলাম না, মহান সৃষ্টি কতা যতদিন বেঁচে রাখবে ততদিন চেষ্টা করবো যেনো আমার দ্বারা কোনো অন্যায় বা অপরাধ না হয়।

তিনি আরো বলেন, যুবক হয়েও ৮ নং ওয়াডের সকল শ্রেনী পেশার জনগণের কাছে আমার বিগত দিনের কমকান্ডের জন্য পরিচিতি রয়েছে। তাদের অনুরোধে এবারের পৌর নিবাচনে প্রাথী হচ্ছি। আমার মুল লক্ষ্য হচ্ছে – এ পৌরসভা দেশের প্রথম শ্রেণীর পৌরসভা। অথচ বিগত দিনের ওয়াডের জনগণের রায়ে নিবাচিত জনপ্রতিনিধিগন নাগরিকদের কে পৌর পরিষদের সঠিক সেবা দিতে ব্যথ হয়েছেন। তাই যাদের ভোটে আমি কাউন্সিলর হবো, তাদের কে সেবা দেওয়া আমার নৈতিক দায়িত্ব। তাই এ ওয়ার্ডবাসীর একজন সেবক হিসেবে তাদের পাশে থাকার অঙ্গীকার নিয়ে প্রাথী হবো।

তাঁর প্রার্থীতার বিষয়ে তিনি আরো বলেন, আমরা পারিবারিকভাবেই জনগণের যে কোনো কল্যাণ কর কাজে সব সময় সহযোগিতা করে আসছি। শহরবাসী নয় পুরো জেলা বাসীর জানা রয়েছে, ঘোষপাড়া ঘোষ বাড়ি সম্পর্কে। কারণ আমাদের বিগত কর্মকান্ডে এ ওয়াডের জনগণ সন্তুষ্ট বিধায় এর পূবে ও এ ওয়াডের কাউন্সিলর পদে দু’বার সহদেব ঘোষ নিবাচিত হয়েছেন। তাঁর অকাল মৃত্যুতে ওয়াডের জনগণের অনুরোধে আমি প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছে রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমি এলাকার ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ, সন্তাস বিরোধী কাজগুলো বিষয়ে সব সময় প্রতিবাদী ছিলাম এবং এলাকার তরুণ ও যুব সমাজ কে ঐক্যবদ্ধ করে এ কাজ গুলোর বিষয়ে সব সময় প্রতিবাদ করে আসছি। শুধু তাই নয়, এলাকাবাসীর চলাচলের জন্য রাস্তা ঘাটের কোনো সমস্যা আমার কানে পৌছানোর পর যখন যেভাবে পারছি, তাদের সমস্যা সমাধানে আন্তরিক ভাবে চেষ্টা করেছি। এমনকি দিবা রাএি যে কোনো কারণে কেউ ডাকলে তাঁর ডাকে সাড়া দেইনি এমন রেকর্ড নাই।

তিনি আরো বলেন, আমাদের ওয়াডটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি ওয়াড। পৌরসভার মূল নাভীকাঠিতে এ ওয়াডের কেউ বলতে পারবে না, কোনো দিন কোথায় সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি এবং টেন্ডারবাজি করেছি। আমি এলাকার শিক্ষা, ক্রীড়া, ধর্মীয়, সামাজিক, সাংস্কৃতিক এককথায় অপরাধমূলক কাজ ব্যতীত সমাজের কল্যাণকর কাজে জড়িত। আমি সবোপরি আমার ওয়াডবাসীর কাছে অনুরোধ জানিয়ে বলতে চাই, বিগত দিনে আমার আচার আচরণ ও সকল কিছু বিবেচনায় নিয়ে আমাকে আপনাদের সেবক হয়ে কাজ করার জন্য আপনাদের সন্তান হিসেবে আপনাদের দোয়া ও সহযোগিতা চাই।

প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার :

চাঁদপুর রিপোর্ট : এমআরআর

179 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়