chandpurreport comilla member

কুমিল্লায় গরিবের কার্ডে ইউপি মেম্বারের টিপসই, চাল পায়নি দরিদ্ররা!

 

জাহাঙ্গীর আলম ইমরুল :

কুমিল্লার দেবিদ্বারে টিপসই দিয়ে গরিবের চাল আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে এক ইউনিয়ন মেম্বারের বিরুদ্ধে। দরিদ্র মানুষের নামে কার্ড করে নিজে টিপসই দিয়ে চাল উত্তোলনের এই অভিযোগ উপজেলার সুবিল ইউনিয়নের ৮ নং ইউপি মেম্বার নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে।

অভিযোগকারী জানান, গ্রাম পুলিশ আক্তার হোসেন তাদের হাতে কার্ড তুলে দেন। তাও গত মঙ্গলবার ১৪ এপ্রিল মঙ্গলবার। কিন্তু ওই কার্ডে দেখা যায়, ২০১৬ সাল থেকে টিপসই দিয়ে চাল তোলা হয়েছে।

এর আগে তারা জানতেন না যে, তাদের নামে ওএমওস এর কার্ড আছে। গ্রাম পুলিশ আক্তার জানান এখন থেকে তারা ১০ টাকা কেজি চাল পাবেন।

Nk

পশ্চিম পোমকাড়া গ্রামের স্বপন মজুমদার জানান, ‘আমার নামে যে কার্ড আছে সেটিই সেটাই আমি জানি না। আমাকে এই কার্ডটা দিয়ে গেছে। দেখি ওরা ১৫ টা টিপসই দিয়ে রাখছে’। তদন্তে বেড়িয়ে আসে এমন আরও ১২টি ভুক্তভুগী পরিবারের তথ্য। তারা হলেন, স্বপন মজুমদার, মো শফিকুল ইসলাম, রফিজ, চাঁন মিয়া, কাবিল, খাইরুল, দেলোয়ারা বেগম, ফুল মিয়া, শহীদ মিয়া, দেলোয়ার হোসেন। তাদের একই অভিযোগ, তাদের নামে যে কার্ড আছে এটা তারা জানতেনও না। প্রত্যেকের কার্ডে ইউপি মেম্বার নিজের আঙ্গুলের ছাপ দিয়ে চাল তুলে আত্মসাৎ করেছে।

add all nk last

ওএমএস এর কার্ড গুলো যাচাই করে দেখা যায়, প্রত্যেক গ্রাহকের কার্ড ব্যবহার করে চাল তোলা হয়েছে কমপক্ষে ১৩-১৭ বার। যা ২০১৬ সাল থেকে শুরু হয়েছে।

এই বিষয়ে অভিযুক্ত সুবিল ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ড মেম্বার নজরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘আমার ওয়ার্ডে দরিদ্র বেশী। তাই সবাইকে ত্রাণ দিতে গিয়ে একজনের নামের কার্ড দিয়ে অন্যজনকে চাল দিতে হয়েছে। তিনি আরও জানান, এমন ওএমএস- এর ৮০ টি মতো কার্ড রয়েছে তার ওয়ার্ডে।

এদিকে গত ১১ এপ্রিল সুবিল ইউনিয়নে ওএমএস এর ডিলার ও ৭নং ওয়ার্ড মেম্বারের বিরুদ্ধে চাল আত্মসাতের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় উপজেলায় সকল প্রতিনিধিদের গ্রাহকের হাত কার্ড পৌঁছে দিতে নির্দেশ দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান জানান, চাল আত্মসাতের বিষয়ে এর আগেও আমাদের কাছে কয়েকটি অভিযোগ এসেছে। আমরা তদন্ত করে এক মেম্বার ও ডিলারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি। সুবিল ইউনিয়নের ৮ নং ইউপি মেম্বারের বিরুদ্ধে টিপসই দিয়ে গরিবের চাল আত্মসাতের অভিযোগের বিষয়েও আমরা তদন্ত করবো। অভিযোগ প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

125 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন