chandpurreport faridgonj dayal

‘ফরিদগঞ্জে পৈত্রিক সম্পত্তিতে দেয়াল নির্মাণ’ নিয়ে ঝিনুক পাটোয়ারীর লিখিত বক্তব্য

স্টাফ রিপোর্টার :

‘ফরিদগঞ্জে পৈত্রিক সম্পত্তিতে দেয়াল নির্মাণ’ শীর্ষক সংবাদ প্রকাশ নিয়ে ঝিনুক পাটোয়ারী লিখিত বক্তব্য দিয়েছেন। নিম্নে তা তুলে ধরা হলো :

‌১৯৮২ সালে মধ্য পোয়া মৌজার ১০১০ দাগে ২৫ শতক ৯৯১ দাগে ২১শতক ১০১৪দাগে ১০ শতক ১০১৭ দাগে ১৭ শতক ও ১০১৪/১০০৪ দাগে ২৬ শতক জমি ক্রয় করে প্রোয়া গ্রামের মরহুম টেলু মিয়া ওরফে গোপরান পাটোয়ারী দলিল মূলে দীর্ঘদিন ভোগ দখল করে আসছে এতে করে পার্শ্ববর্তী বাড়ি থেকে আসা আব্দুস সাত্তার গংরা চলাচলে রাস্তার জন্য গোফরান পাটোয়ারী তার পরিবার আবেগপ্রবণ হয়ে আব্দুস সাত্তার গংদের কে নিজের বাড়ির সম্পত্তির উপর দিয়ে যাতায়াতের রাস্তা করে দেয়।

তাদের অন্যত্র পাশ দিয়ে চলাচলের রাস্তা ছিল কিন্তু রাস্তা কাছাকাছি হওয়ায় ‌দীর্ঘদিন যাতায়াতের রাস্তা ব্যবহার করার পর। তারা দাবি করে কিছু জমি তাদের কাছে বিক্রি করার জন্য কিন্তু গোফরান পাটোয়ারীর ছেলেরা রাজি হয়নি।

‌ রাজি না হওয়ায় আব্দুস সাত্তার বাদী হয়ে চাঁদপুরের বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে ১২সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে ঝিনু পাটোয়ারী গংদের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন ।

‌বিজ্ঞ আদালত ঝিনু পাটোয়ারী দের দলিলপত্র দেখে প্রতীয়মান হয় যে তাহারা খরিদ সূত্রে মালিক হয়ে ভোগ দখল করে আসছে।

‌নিজেদের জায়গা ব্যবহার করতে দেওয়ায় তাহারা উল্টো অভিযোগ করে হয়রানি করছে। সর্বশেষ গত 2 সপ্তাহ পূর্বে আব্দুস সাত্তার গংরা রাতের আধারে ঝিনু পাটোয়ারী দের জমি দখল করার পায়তারা করে তারা টের পেয়ে জমি দখল করতে না দেওয়ায় ইউপি সদস্যসহ ঝিনু পাটোয়ারী কে গুরুতর আহত করে তার একটি হাত ভেঙে যায় এবং মাথায় ১১টি সেলাই দিতে হয়েছে বর্তমানে ঝিনু পাটোয়ারী চাঁদপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায়

‌ রয়েছেন। ঝিনু পাটোয়ারী তার লিখিত বক্তব্যে বলেন আমিও আমার পরিবার খরিদা সম্পত্তিতে আ: সাত্তার গংকে চলাচলে রাস্তা দিয়েছি তারা অন্য বাড়ির বাসিন্দা তাদের অন্যত্র চলাচলের রাস্তা রয়েছে।

‌আমি আদালতে নির্দেশনা মান্য করে আসছি তাই আমার পৈত্রিক সম্পত্তিতে অন্যত্র চলাচল বন্ধ করে দিয়েছি।

‌তার লিখিত বক্তব্যে আরো বলেন সাইফুল মেম্বার আমায় ভাইয়ের আত্নীয় তাকে জড়িয়ে যে কিছু অনলাইন মিডিয়ার মাধ্যমে কিছু মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করে তার সুনাম ক্ষুন্ন করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে একটি চক্র। তাদের এই হীন অপচেষ্টায় এই অপপ্রচার বিরুদ্ধে আমি ও আমার পরিবার এর প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এবং আমার এলাকার একটি চক্রের ইন্ধনে আমাদেরকে বারংবার মামলা দিয়ে হয়রানি করে যাচ্ছে।

‌আমি জাগ্রত সমাজের মাধ্যমে এদের বিচার দাবী করছি। এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আব্দুর রকিব বলেন তাদেরকে বলছি জায়গা জমি হলো আদালতে বিষয় তারা আদালতের শরণাপন্ন হলে দ্রুত সমাধান সম্ভব। পাশাপাশি উভয় পক্ষেকে এই সংকটে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

456 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন