haimchor 1

হাইমচরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৬

নিজস্ব প্রতিনিধি :

হাইমচর উপজেলার উত্তর আলগী ইউনিয়নের মহজমপুর গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

দুই গ্রুপের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৬জন গুরুতর আহত হয়েছে।

আহতদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় কর্তব্যরত ডা. সকল আহতদেরকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলার প্রাণ কেন্দ্রে মহজমপুর গ্রামে দুইভাই আক্কাছ মাল ও তাজুল ইসলাম মালের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

ঘটনা সূত্রে জানাযায়, পাশ্ববর্তী বাড়ির ঝগড়ার মিমাংসাকে কেন্দ্র করে তাজুল সমালম মালকে আক্কাস মালের ছেলে জনু মাল তুচ্ছ তাচ্ছুল্য করে গালমন্দ করে।

ঐ সময় তাজুল মালের ছেলে সোহাগ মালের সাথে উভয়ের কথা কাটাকাটির একপর্যায় এ সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।

Add piles sex Diabeties all

সংঘর্ষে উভয় পক্ষই ৬জন আহত হয়। আহতরা হলেন, নুরুজ্জামানের ছেলে রাকিব (২৫), লতিফ দেওয়ানের স্ত্রী রাহিমা বেগম (৪৫), বাদশা গাজির ছেলে বাচ্চু মিয়া (৫০), শহীদুল্লার ছেলে খোকন দেওয়ান(৩৫), আক্কাছ মালের ছেলে রাসেল মাল (২৩), জয়নাল আবদীন জনু(২৮)। সংঘর্ষের ঘটনার সংবাদ পেয়ে হাইমচর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জহিরুল ইসলাম খাঁন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ ব্যাপারে তাজুল ইসলাম মাল বলেন, সন্ধায় পাশ্ববর্তী রকমান হাওলাদারের জামাইর সাথে কলনীর একটি ছেলে খারাপ আচারন করেছে বলে আমার কাছে বিচার দিতে আসলে তাকে আমি দেশের পরিস্থিতির কথা চিন্তা করে পরবর্তী সময়ে মিমাংসা করে দিব বলে বিদায় করে দেই।

পরবর্তীতে আক্কাছ মালের ছেলে জনু আমার ছেলের সামনে আমাকে তুচ্ছতাচ্ছুল্য করে গালমন্দ করে। সেখানেই আমার ছেলের সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। আমি ঘটনাটি জনতে পেরে উভয়কে শান্ত থাকার জন্য অনুরোধ করি।

এ ব্যাপারে আক্কাছ মাল জানান, আমি বাড়িতে ছিলাম না। মারামারির সংবাদ পেয়ে বাড়িতে আসলে আমার দুই ছেলে আহত হলে হাসপাতালে ভর্তি করাই। তাজুমালের সাথে আমাদের পূর্বের শত্রæতা ছিল।

তার পরিপেক্ষিতে আজকের ঘটনাটি ঘটেছি। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের মামলার প্রস্তুতি চলছে।

288 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন