এখনো অরক্ষিত চাঁদপুর পৌর ঈদগাহ : গাড়ি পাকিংয়ে ভাঙ্গলো নবনির্মিত গেট

0
3

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট :

সৌন্দর্য ও পবিত্রতা হারিয়ে অসামাপ্ত কাজে এখনো অরক্ষিত ভাবেই রয়েছে চাঁদপুর শহরের প্রধান পৌর ঈদগাহ। প্রায় বছর খানেক পূর্বে শহরের প্রধান এই ঈদগাহ নিয়ে গাড়ি পাকিং এবং ব্যবসায়ীদের দখলে অরক্ষিত চাঁদপুর পৌর ঈদগাহ, শিরোনামে স্থানীয় পত্র পত্রিকায় বেশ কয়েকবার সচিত্র সংবাদ প্রকাশিত হয়।

http://picasion.com/

তারই প্রেক্ষিতে ঈদ গাটি রক্ষনাবেক্ষনে পুনঃসংস্কারের উদ্যোগ নেয় চাঁদপুর পৌর সভার মেয়র আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ।

জানাযায়, সৌন্দর্য ও পবিত্রতা রক্ষার জন্য চাঁদপুর পৌরসভার প্রায় ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে উন্নত পরিসরে পৌর ঈদগা’র চর্তুদিকের বাউন্ডারি দেয়ালের নির্মান কাজ শুরু করেন। কিন্তু এটি রক্ষনাবেক্ষনের জন্য পুনঃসংস্কার কাজ ধরা হলেও অদৃশ্য কোন কারনে গত কয়েক মাস ধরে ঈদ গাঁটির নির্মান কাজ অসামাপ্ত হয়ে পড়ে থাকতে দেখা যায়। তার পর থেকে আবারো ঈদ গাঁ টি তার সৌন্দর্য ও পবিত্রতা হারিয়ে এখন বিভিন্ন নির্মান সামগ্রী, ময়লা আবর্জনার স্তপ, কাঁচা মাল এবং বিভিন্ন গাড়ি পাকিংয়ের দখলে রয়েছে।

চাঁদপুরের প্রধান ঈদ গাঁ হিসেবে পৌরসভার এই ঈদ গাঁ মাঠেই প্রতিবছর পবিত্র ঈদের নামাজ আদায় করেন মুসলমানরা। অথচ কিছু সুবিদা ভোগীদের দখলে সে ঐতিহ্যবাহী ঈদ গাঁ টি যেনো অরক্ষিত হয়ে পড়ে আছে। তা দেখার যেনে কেউ নেই। যেখানে মুসলমানরা প্রতি বছর পবিত্র ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহার নামাজ আদায় করে থাকেন। সে মাঠটি এখন কাঁচামাল ব্যবসায়ীদের ময়লা আর্বজনার স্তুপ, ট্রাক, পিকআপ ভ্যান এ্যাম্বুলেস, রিক্সা ও ঠেলাভ্যান সহ বিভিন্ন ধরনের ছোট-বড় অসংখ্য যানবাহন পাকিং করে রাখতে দেখা গেছে।

চাঁদপুর শহরের কবি নজরুল সড়কস্থ ( সাবেক স্ট্যান্টরোড) পুরান বাজার নতুন বাজার ব্রীজের নিকটে অবস্থিত পৌর ঈদ গাঁ মাঠটিতে সরজমিনে গিয়ে দেখাযায়, মাঠের চর্তুদিকে মাঠ জুড়ে পিকআপ ভ্যান, এ্যাম্বুলেন্স, ট্রাক, ঠেলাভ্যান, রিক্সাসহ বিভিন্ন ছোট- বড় যানবাহন পাকিং করে রাখা হয়েছে। আর এসব যানবাহন পাকিং করতে গিয়ে যখন স্থানীয় রড, সিমেন্ট ব্যবসায়ীদের বড় বড় ট্রাক, মাঠে প্রবেশ করে তখন দেখা গেছে নবনির্মিত দেয়াল এবং দেয়ালে আঘাত লাগে। স্থানীয়রা জানান গত কয়েকদিন পূর্বে ঈদ গা^য়ের পশ্চিম পাশের গেট দিয়ে একটি সিমেন্ট কোম্পানীর ট্রাক প্রবেশ করার সময় নবনির্মিত গেটটির ওপরের অধিকাং অংশ ভেঙ্গে ফাটল ধরে আছে। তারা জানান এটি যেকোন মুর্হুতে ভেঙ্গে পড়ার আশংকা রয়েছে। এতে যে কোন পথচারী গুরুরত আহত হতে পারে। এছাড়াও বিভিন্ন কাঁচামাল সেখানে ফেলে রাখার কারনে এবং বহিরাগতদের মল মূত্রে সেখানে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। যার কারনে ঈদ গাঁ মাঠটি একদিকে যেমন পবিত্রতা রক্ষা পাচ্ছেনা অন্যদিকে পরিবেশ দূষিত হয়ে তার সৌন্দর্য হারাচ্ছে শহরের এই প্রধান ঈদ গাঁ টি।

দেখা গেছে স্থানীয় ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন বাসা বাড়ির লোকদের ময়লা আবর্জনা ফেলার জন্য কয়েক বছর পূর্বে চাঁদপুর পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ঈদ গাঁয়ের এককোণে নির্দিষ্ট একটি ডাস্টবিন নির্মান করেছেন। অথচ প্রতিনিয়ত দেখা যায় কিছু কাঁচামাল আড়াৎদাররা নির্দিষ্ট ওই ডাস্টবিনে তাদের পঁচা কাঁচামাল না ফেলে ডাস্টবিনের পাশে সড়কের ওপর অথবা ঈদ গাঁ মাঠে ওইসব পঁচা কাঁচামাল ফেলছেন। তাদের এসব ময়লা আবর্জনা মাঠে এবং সড়কে ফেলে রাখার কারনে সেগুলো দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পরিবেশ নষ্ট করছে।
তাই চাঁদপুরের এই ঐতিহ্যবাহী প্রধান ঈদ গাঁ মাঠটির পবিত্রতা রক্ষা করতে অর্ধসমাপ্ত নির্মান কাজ সম্পর্ন করে যাতে স্থায়ীভাবে এসব দখল কারীদের হাত থেকে পবিত্র ঈদ গাঁটি মুক্ত করে তার প্রকৃত সৌন্দর্য ও পবিত্র ফিরিয়ে আনবে পৌর কর্তৃপক্ষ এমনটাই প্রত্যাশা সচেতনমহলের।

ফেসবুকে মন্তব্য করুন
42 জন পড়েছেন
http://picasion.com/