চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালে শুরু হচ্ছে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টের কাজ : ইঞ্জিনিয়ারদের পরিদর্শন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট :

শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মণির দেয়া প্রতিশ্রæতিতে আড়াই,শ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে আজ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে সেন্ট্রাল অক্সিজেন (হাইফ্লো অক্সিজেন) প্লান্টের কাজ। ভাষাবীর এম এ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্যাস্টের অর্থায়নে সরকারি হাসপাতালে এই সেন্ট্রাল অক্সিজেন স্থাপন হতে যাচ্ছে।

এ উপলক্ষ্যে ৫ জুলাই রোববার বিকেলে হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডে অক্সিজেন স্থাপনকৃত স্থান পরিদর্শন করেছেন স্প্রেক্ট্রা ইন্টার ন্যাশনাল কোম্পানী লিমিটেডের ইঞ্জিনিয়ারগন সহ বিভিন্ন কর্মকর্তাগন। এসময় তারা হাসপাতালের নিচতলা হতে শুরু করে দ্বিতীয় তলা, তৃতীয় তলা এবং চতুর্থ তলার বিভিন্ন ওয়ার্ডে সেন্ট্রাল অক্সিজেন (হাইফ্লো অক্সিজেন) প্লান্টের স্থাপনের স্থান গুলো পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন, স্প্রেক্ট্রা ইন্টার ন্যাশনাল কোম্পানী লিমিটেডের ইঞ্জিনিয়ার জাহাঙ্গীর আলম, সাইট ইঞ্জিনিয়ার সাইফ চৌধুরী, সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সাখাওয়াত উল্ল্যাহ, চাঁদপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের অধ্যক্ষ প্রপেসর ডাঃ জামাল সালেহ উদ্দিন, আড়াই,শ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডাঃ এ কে এম মাহবুবুর রহমান, আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ সুজাউদ্দৌলা রুবেল, জেলা বিএম এর সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মাহমুদুন্নবী মাসুম, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এ এইচ এম আহসান উল্ল্যাহ, চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়াম্যান আইয়ুব আলী বেপারী, অ্যাড, সাইফুদ্দিন বাবু সহ হাসপাতালের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাচারীরা।

পরিদর্শন শেষে স্প্রেক্ট্রা ইন্টার ন্যাশনাল কোম্পানী লিমিটেডের ইঞ্জিনিয়ার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এই হাসপাতালটির যেসব স্থানে সেন্ট্রাল অক্সিজেন (হাইফ্লো অক্সিজেন) প্লান্ট স্থাপন হবে। আমরা সেইস্থান গুলো পরিতদর্শন করেছি। আগামীকাল (আজ) থেকেই আমরা কাজ শুরু করবো।

এরপূর্বে জেলা প্রশাসনের ভার্চুয়াল সভায় স্থানীয় সংসদ সদস্য ও শিক্ষামন্ত্রী ডা দীপু মনি হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন (হাইফ্লো অক্সিজেন) প্লান্ট স্থাপন করার খবর জেলাবাসীকে জানান। ওই সময় তিনি আরো জানান, চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জন্যে একটি সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট সংগ্রহ করেছেন। সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টের আপাতত হাসপাতালের ৩০ শয্যা কভার করার মতো ক্যাপাসিটি হবে। পরবর্তীতে এটিকে আরো বাড়ানো যাবে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমি চাঁদপুরের জন্যে এটি ম্যানেজ করেছি। তবে দেশের বাইরে থেকে এনে তা এখানে স্থাপন করা হবে। জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত সময় লাগবে। তিনি আরো বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ চলে গেলেও সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টটি সব সময়ের জন্যেই হাসপাতালে রোগীদের কাজে লাগবে। বিশেষ করে আইসিইউর জন্যে তো অবশ্যই এটি লাগবে। তারই প্রেক্ষিতে রোববার থেকে চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন (হাইফ্লো অক্সিজেন) প্লান্টের কাজ শুরু করছেন সংশ্লিস্ট কর্তপক্ষ।

এদিকে চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালে এই সেন্ট্রাল অক্সিজেন (হাইফ্লো অক্সিজেন) প্লান্ট স্থাপন হওয়ায়, চাঁদপুরের সিভিল সার্জন, চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালের তত্বাবধায়ক, সহকারী পরিচালক, আরএমও সহ সকল কর্মকর্তাগন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মণির প্রতি কৃর্তজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

59 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়