চাঁদপুর হাসপাতালে যুক্ত হলো ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা

চাঁদপুরে করোনায় আক্রান্ত মূমূর্ষ রোগীদের চিকিৎসায় এবার চালু হচ্ছে হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা। বিনামূল্যে এই সেবা পাওয়া যাবে চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে। সেখানে চিকিৎসাধীন সঙ্কটাপন্ন করোনা রোগীদের রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ এমন চিকিৎসা সরঞ্জাম দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বুধবার (১৫ জুলাই) বিকেলে রাজধানী ঢাকায় তার সরকারি বাসভবন থেকে হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের হাতে অতি গুরুত্বপূর্ণ এই চিকিৎসা সরঞ্জাম তুলে দেন। শিক্ষামন্ত্রী এসময় তিনটি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা ডা. আবু সাহাত মো. সায়েম এবং ডা. তৌহিদুল ইসলামের কাছে হস্তান্তর করেন।

এর আগে গত রোববার চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের ৩০ শয্যার আইসোলেশন ওয়ার্ডের সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট চালু করা হয়। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি‘র প্রয়াত বাবা ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট-এর সহায়তায় এটি স্থাপন করা হয়।

এদিকে, চাঁদপুরে কোভিড ১৯ বিষয়ক সমন্বয়ক এবং হাসপাতালের আবাসিক সার্জন ডা. মাহমুদুন নবী মাসুম জানান, করোনায় শ্বাসপ্রশ্বাস নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়া রোগীদের জন্য হাই ফ্লো ক্যানোলা ন্যাজাল একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ। এমন একটি যন্ত্র প্রতি মিনিটে একজন রোগীকে একশ লিটার পরিমাণ অক্সিজেন সরবরাহ করতে সক্ষম। ফলে করোনায় শ্বাসপ্রশ্বাস কষ্টে পড়া মূমূর্ষ রোগীদের রক্ষায়- এই হাই ফ্লো ক্যানোলা ন্যাজাল বিশেষ ভূমিকা রাখবে। ডা. মাসুম আশা করছেন, এতে চাঁদপুরে করোনায় আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুহার অনেকাংশে হ্রাস পাবে। .

হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. মাহাবুবুর রহমান জানান, বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত আইসোলেশন ওয়ার্ডে সব মিলিয়ে ২১ জন রোগী চিকিৎসাধীন আছেন। এদের মধ্যে করোনা পজিটিভ ১৫ জন এবং উপসর্গ নিয়ে আরো ৬ জন। তবে ২ জনের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন বলে জানিয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে, আগামী সপ্তাহে চাঁদপুরে করোনার নমুনা পরীক্ষার জন্য আরটি পিসিআর ল্যাবরেটরি চালু হচ্ছে। চট্টগ্রাম ভেটেনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রযুক্তিগত সহায়তা নিয়ে এই ল্যাবরেটরির মূল উদ্যোক্তা হলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং তার বড়ভাই বিশিষ্ট চিকিৎসক জেআর ওয়াদুদ টিপু।

প্রসঙ্গত, এই ল্যাবরেটরি চালু হলে করোনা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় আর নমুনা পাঠাতে হবে না। এতে প্রতিদিনের নমুনার পরীক্ষার তথ্য খুব সহজেই রোগীরা পেয়ে যাবেন।

61 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়