chandpur report 334

ফরিদগঞ্জে বৃদ্ধাকে গলাকেটে হত্যা : যুবক আটক

ফরিদগঞ্জ ব্যুারো :
ফরিদগঞ্জে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা অঞ্জলী দাস (৬০) নামে এক নারীকে নিজ বসত ঘরেই গলাকেটে হত্যা করেছে। হত্যার পর দুর্বৃত্তরা ঘরের বাইরে তালা মেরে দেয়। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনায় ওই এলাকায় একা বসবাস করা নারী পুরুষদের মধ্যে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। এই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আজাদ নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

সংবাদ পেয়ে মঙ্গলবার(২১ জুলাই) রাতে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। এসময় থানা পুলিশের পাশপাশি পিবিআই ও সিআইডির একটি দল উপস্থিত হয়। উপজেলার ৬নং গুপ্টি পশ্চিম ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রামের ধোপা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে নিহতের ভাই অমর কৃষ্ণদাস বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের (নং- ২৫। তাং ২২.৭.২০২০) করেছে।

স্থানীয় লোকজন জানায়, খাজুরিয়া গ্রামের ধোপা বাড়ির প্রয়াত ইন্দ্রজিৎ দাসের বিধবা স্ত্রী অঞ্জলী রানী দাসের ছোট বোন পূর্ণিমা ও বোনের জামাতা খোকন ল²ীপুর থেকে নিহতের বাড়িতে বেড়াতে এসে ঘরের দরজায় তালা মারা দেখতে পান। কোথায় গেছে এই বিষয়ে আশপাশের লোকজনের কাছে জানতে পারেন গত সোমবার দুপুরের পর থেকে ঘরের দরজা বন্ধ তারা দেখতে পায়। পরে ঘরের জানালা দিয়ে উঁকি দিয়ে ঘরের ভিতরে মেঝে অঞ্জলীর রক্তাক্ত মৃতদেহ দেখতে পান। ধারনা করা হচ্ছে সোমবার দুপুরের পর থেকে মঙ্গলবার দুপুরের মধ্যে এঘটনাটি ঘটায় দুর্বত্তরা।

নিহতের ভাই অমর কৃষ্ণদাস জানান, প্রায় এক বছর পুর্বে তার বোন অঞ্জলীর স্বামী ইন্দ্রজিৎ মারা যায়। এক মাত্র ছেলে আশীষ দাস মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কুয়েত প্রবাসী।

সংবাদ পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রকিবসহ পুলিশ ফোর্স রাতে ঘটনাস্থলে গিয়ে চাঁদপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) আফজাল হোসেনকে জানালে বিষয়টি স্পর্শকাতর মনে হওয়ায় পিবিআই ও সিআইডিকে অবহিত করে। পরে তারা ঘটনাস্থলে ছুটে এসে অপরাধের আলামত সংগ্রহ করেন। এব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রকিব জানান,গলাকেটে হত্যার ঘটনা শুনে তারা ঘটনাস্থলে গিয়েছেন। লাশ উদ্ধার করে পোস্ট মর্টেমের জন্য পাঠানো হয়েছে।

97 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন