চোখের ছানি প্রতিরোধে ঘরোয়া উপায়

চোখে ছানি পড়া খুব মারাত্মক এক রোগ। এতে দৃষ্টিশক্তি ঘোলা হয়ে এক সময় মানুষ অন্ধ হয়ে যায়। বর্তমানে চোখের ছানি দূর করা যায় অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে। তবে ঠিক সময়ে ছানি পড়া প্রতিরোধ করা গেলে সেই অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হয় না।

বয়স বাড়লে চোখে ছানি পড়ার এই সমস্যা দেখা দেয়। আর ডায়াবেটিস রোগের কারণে ওই সমস্যা আরো বাড়ে। চোখের ছানি পড়তে অবশ্য সময় নেয়। প্রথমে ঝাপসা দেখার সমস্যায় ভোগেন রোগী। প্রাথমিক অবস্থায় চিকিৎসা না করালে এক পর্যায়ে অন্ধ হয়ে পড়েন সেই রোগী। ছানি পড়ার ক্ষেত্রে ডায়াবেটিস, জেনেটিকস, বয়স বাড়া, সূর্যের আলোয় বেশি থাকা, ভিটামিনের ঘাটতি, ধূমপান ও অ্যালকোহল আসক্তি এসবও প্রভাব ফেলে অনেক। প্রাথমিক অবস্থায় ছানির সমস্যা ধরা পড়লে তা প্রতিরোধ করতে কিছু ঘরোয়া উপায় আপনার জন্য উপকারি হতে পারে।

* রসুন : ভেষজ গুণ সম্পন্ন মসলা উপকরণ রসুন শরীরের জন্য অনেক উপকারী। প্রতিদিন কয়েক কোষ রসুন খেলে তা চোখের লেন্স পরিষ্কার করে চোখের ছানি প্রতিরোধ করে। রসুনে থাকা খুব উপকারি উপাদান অ্যালিসিন ছানি প্রতিরোধ করতে ভূমিকা রাখে।

* বাদাম : বাদাম শরীরের জন্য খুব উপকারী। দৃষ্টিশক্তি ভালো করে বাদাম। রাতে কিছু বাদাম পানিতে ভিজিয়ে রেখে সকালে তার পাতলা খোসা ছাড়িয়ে কুসুম গরম দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে চোখের অনেক সমস্যা দূর হয়। বাদামে থাকা ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এসিড ও শক্তিশালী কিছু অর্গানিক উপাদান ছানি প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

* পালং শাক : পালং শাকের মতো সবুজ শাক দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধিতে দারুণ কার্যকর। চোখের ছানি প্রতিরোধেও পালং শাক অনেক ভূমিকা রাখে। এতে থাকা প্রচুর পরিমাণে ফাইটো নিউট্রেয়ান্ট অক্সিডেটিভ স্ট্রেস কমিয়ে ছানি পড়া রোধ করে। তাই নিয়মিত পালং শাক খেলে উপকার পাবেন।

* গাজর : প্রচুর বিটা ক্যারোটিন থাকে গাজরে। তাই এই সবজি দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে খুব উপকারি। এতে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও লুটেনিন চোখের অক্সিডেটিভ স্ট্রেস কমিয়ে চোখের সমস্যা দূর করে ও বার্ধক্যজনিত দৃষ্টিশক্তি হ্রাস অনেকটাই পিছিয়ে দেয়।

* পেঁপে: পেঁপেতে প্যাপিন নামের এক এনজাইম থাকে প্রচুর পরিমাণে, যা প্রোটিন দ্রুত হজম হতে সহায়তা করে। এ কারণে নিয়মিত পেঁপে খেলে চোখে প্রোটিন জমা হতে পারে না।

* মধু : চোখের বিভিন্ন সমস্যা দূর করা ও ছানি পড়া রোধ করতে অনেক আগে থেকেই মধু একটি কার্যকর খাবার হিসেবে স্বীকৃত।

* অশ্বগন্ধা : এই ভেষজ গাছটি আয়ুর্বেদিক ওষুধ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। নিয়মিত এই ভেষজ গাছ খেলে চোখের ছানি পড়া প্রতিরোধ হয়।

* গ্রিন টি : প্রচুর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট থাকায় নিয়মিত গ্রিন টি পান করলে চোখের ছানি পড়া সমস্যা দূর হতে পারে। এতে থাকা ফাইটো নিউট্রিয়ান্ট দৃষ্টি শক্তি ঝাপসা হওয়া প্রতিরোধ করে।

রোগীর অবস্থা শুনে ও দেখে সারাদেশের যে কোনো জেলায় বিশ্বস্ততার সাথে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

 

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

(শতভাগ বিশ্বস্ত ও প্রতারণামুক্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান)

ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।

যোগাযোগ করুন : (সকাল ১০টা থেকে রাত ০৮ টা (নামাজের সময় ব্যতীত)

01960-288007

01762-240650

01834-880825

01777-988889 (Imo/whats-app)

শ্বেতী রোগ, যৌন রোগ, ডায়াবেটিস,অশ্ব (গেজ, পাইলস, ফিস্টুলা),ব্লকেজ, শ্বেতপ্রদর, রক্তপ্রদর , আলসার, টিউমার, বাত-ব্যথা, দাউদ-একজিমা ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়।

 

175 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়