ফরিদগঞ্জের সেকদিতে বৃদ্ধাকে গুরুতর জখম, থানায় অভিযোগ করায় ঘরবাড়ি ভাংচুর

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি :
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের সেকদিতে ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধার উপর হামলার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করায় ক্ষুব্ধ হয়ে বাড়িঘরে হামলা চালিয়েছে একদল যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ১নং বালিথুবা পশ্চিম ইউনিয়নের শেখদি গ্রামের মজুমদার বাড়িতে।

জানা গেছে ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধা মৃত বশির উল্যা রাজার স্ত্রী দেলোয়ারা বেগম ছোট পুত্রবধূকে নিয়ে বাড়িতে একাই বসবাস করেন।
ছেলেরা জীবিকার তাগিদে ঢাকাতেই ব্যবসা করেন আহত মাকে হাসপাতালে ভর্তি করান ছোট ছেলের স্ত্রী রাবেয়া বেগম।

পরবর্তীতে লকডাউন এর কারণে থানায় অভিযোগ করালেও কোন সুফল পায়নি ওই বৃদ্ধা। লকডাউন শেষে বৃদ্ধা নিজেই বাদী হয়ে পুনরায় আরেকটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ এর কথা শুনে প্রতিপক্ষ বেলায়েত হোসেন গং ক্ষুব্দ হয়ে বৃদ্ধার বাড়িতে হামলা চালিয়ে দরজা জানালা ভেঙে লুটপাট চালায় এতে নগদ টাকা স্বর্ণালংকার সহ প্রায় ৬ লাখ ১৫ হাজার জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়।

পার্শ্ববর্তী ঘরের আলী আক্কাস বাঁধা দিলে তাকে দেশীয়অস্ত্র দিয়ে আহত করার চেষ্টা করে এতে আলী আক্কাস দৌড়ে পালিয়ে যায়।
পালিয়ে গিয়ে প্রাণে রক্ষা পায়, অভিযোগের ভিত্তিতে ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করার চেষ্টা করে কিন্তু স্থানীয় ভাবে মিমাংসা করা সম্ভব হয়নি।

এতে ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ গত ১৪ আগস্ট শুক্রবার বিকেলে উভয়পক্ষকে থানায় উপস্থিত থাকার জন্য নির্দেশনা প্রদান করে
এতে প্রতিপক্ষরা ক্ষুব্দ হয়ে দেলোয়ারা বেগমের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ঘরবাড়ি ভাঙচুর করে ঘরে থাকা মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

পরবর্তীতে পুনরায় দেলোয়ারা বেগমের ঘরবাড়ি ভাংচুর এবং ঘরে থাকা মালামাল লুট করার অভিযোগে আর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

এতে বলা হয় যে ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধা দেলোয়ারা বেগম বাড়িতে কোন কথা বললেই তাকে ঘরে ঢুকে মেরে ফেলার হুমকি দেয় বেলায়েত হোসেন গংরা। এ বিষয়ে বেলায়েত হোসেন মজুমদারের সাথে মোবাইল ফোনে আলাপ করলে তার মেয়ে মোবাইল ফোনে জানান তার মায়ের অবস্থা বেশি ভালো না তাই তার মাকে নিয়ে চাঁদপুরের অন্য একটি হাসপাতালে নিয়ে গেছে।

বৃদ্ধার বড় ছেলে মোহাম্মদ ইয়ার হোসেন বলেন আমার বৃদ্ধ মা বাড়িতে একা থাকেন বেলায়েত হোসেন গংরা মাকে একা পেয়ে লাঠি দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে ব্যাপক জখম করেছে এখনও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় রক্ত জমে আছে আমরা এটা সুষ্ঠু বিচার চাই।

বৃদ্ধার ছোট ছেলে আফজাল হোসেনের স্ত্রী রাবেয়া বেগম তার পার্শবর্তী বাড়িত যাওয়ার সময় তাকে বেলায়েতের ছেলে আনিছ সহ কয়েক জন বড় রাম দা নিয়ে দৌড়িয়ে অন্য বাড়িতে নিয়ে যায়। বর্তামানে তারা আতংকে দিনাতিপাত করছে।

এই ঘটনায় বালিথুবা পশ্চিম ইউনিয়নের ইউপি সদস্য বিল্লাল হোসেন মোবাইল ফোনে জানান, ঘটনাটি শুনেছি কিন্তু দেলোয়ারা বেগমের ছেলেরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ায় বারং বার তারা থানা পুলিশের শরণাপন্ন হচ্ছে। এই ঘটনাটি এভাবে চলতে থাকবে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে।

এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক জাকারিয়া মোবাইল ফোনে জানান পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বিদ্ধার উপর হামলা করা হয়েছে এ বিষয়ে উভয় পক্ষ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। আমরা তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

128 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়