ফরিদগঞ্জে শত বছরের রাস্তায় বেড়া : অবরুদ্ধ ৪ বাড়ির লোকজন

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি:
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে ঈদগাহে ঈদের নামাজ পড়াকে কেন্দ্র করে শত বৎরের পুরনো রাস্তা কেটে বাঁশ দিয়ে বেড়া অবরুদ্ধ চার বাড়ির লোকজন। অসহায় জীবনযাপন করছে তারা। বাড়ি সামনে মসজিদ থেকেও রাস্তা কাঁটা ও বাঁশের বেড়ার কারণে নামাজ পড়তে না পারায় হতাস বাড়ির মুসল্লিরা। অন্যদিকে ঈদ উপলক্ষে বাড়ি থেকে বের হতে না পেরে এবং বাড়িতে কোন অতিথি আসতে না পারায় এক প্রকার বন্দি জীবন যাপন করছে বাড়ির লোকজন।

ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মাঝে হাতাহাতি ও মারামারি ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় লোকজন। গত শনিবার ঈদের দিন ও রবিবার ঈদের পর দিন উপজেলার ৩ নং সুবিদপুর ইউনিয়নের দিগদাইর গ্রামে পাটওয়ারী বাড়ী ও বেপারী বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন একটি পক্ষ।

ঈদগাহ কমিটির সাধারণ সম্পাদক কালু পাটওয়ারী জানান, দীর্ঘ দিন থেকে আমাদের এলাকায় ঈদের নামাজ ঈদগাহে পড়া হতো। সে মোতাবেক এবারও ঈদের নামাজ আদায়ের জন্য আলোচনা সাপেক্ষে সময় নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু পরবর্তীতে বর্তমান করোনা দুর্যোগের কারণে সরকারিভাবে গণজামায়েত নিষিদ্ধ হওয়ায় স্বল্প পরিষরে মসজিদে মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করা হয়। কিন্তু এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে অতি উৎসাহী কিছু লোকজন বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে।

তিনি আরো বলেন, এছাড়াও পূর্ব থেকে আমাদের এলাকায় গরিবদের জন্যে কোরবানির মাংস একসাথ করে তালিকা অনুযায়ী বিতরণ করা হয়। ওই তালিকা নিয়েও বিতর্ক আসে। একপর্যায়ে এসকল ঘটনাকে কেন্দ্র করে ক্ষমতা ও এলাকার আধিপত্য বিস্তার করতে গিয়ে দ্ব›েদ্বর সৃষ্টি হয় এবং হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গল্লাক আদর্শ ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক মোঃ শরীফ হোসেন পাটওয়ারী আহত হয়। এ নিয়েই বিরোধ আরো তীব্র আকার ধারণ করে এবং তারা বাড়ির রাস্তা কেটে দেয় ও বেড়া দেয় যা অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। এতে এলাকায় শান্তিশৃঙ্খলা বিনষ্ট হয়।

এলাকার মামুন পিতা- মহসিন খাঁন, আলম, পিতা- আঃ ছাত্তার, সেকান্তর বেপারী পিতা- মৃত আঃ আজিজ, আঃ মুনাফ বেপারী পিতা- মৃত আঃ জব্বার সহ অনেকেই জানান, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পাটওয়ারী বাড়ির লোকজন নিজেদের আধিপত্য জাহির করার জন্য এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার জন্ম দিয়েছে। আমরা ৪ বাড়ির মানুষ গৃহবন্দী হয়ে পড়েছি। এই ঈদের সময়ে আমাদের কোন মহেমান অতিথি আসলেও তারা বিভিন্ন উস্কানীমূলক কথা বলে তাদেরকে রাস্তা থেকে বিদায় করে দেয়। বাড়ির ছোট ছোট ছেলেদের সাথে ঘটনাকে কেন্দ্র করে তারা আমাদের বিরুদ্ধে মামলা করে হয়রানি করে আসছে। আমাদের বাড়ির শত বছরের পুরনো রাস্তা কেটে দিয়ে ও বেড়া দিয়ে যে দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করেছে তা ভবিষ্যতের জন্য অশুভ দিক বয়ে আনবে। আমরা এ ঘটনা সুষ্ঠু বিচার দাবি করি।

মামলার বাদী প্রভাষক শরীফ হোসেন পাটওয়ারী জানান, বেপারী বাড়ির লোকজন আমার গায়ে হাত দিয়েছে, আমার অস্তিত্বের উপর আঘাত করেছে। তাদেরকে উচিত জবাব দিবো। আমাদের জায়গার উপর দিয়ে তাদের রাস্তা আমাদের জায়গা দিয়ে আমরা রাস্তা দেবো না। আমাদের জায়গায় আমরা বেড়া দিয়েছি।

মামলার ১নং বিবাদী শেখ ফরিদ আহাম্মদ বলেন, ঘটনার দিন আমি এলাকাতে ছিলাম না । তারা আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এই কাজ করেছে। আমি ঘটনা জানার পরে বহু লোকের মধ্যে দিয়ে বসে সমাধানের চেষ্টা করেছি। কিন্তু তারা রাজি হয়নি। তারা ক্ষমতার দাপট দিয়ে আমাদের হুমকি দিয়ে আসছে। উল্টো তারা আমার বিরোদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। আমরা তার বিচার চাই।

ইউপি চেয়ারম্যান মাও. শরাফত উল্যা জানান, প্রভাষক শরীফ পাটওয়ারীর উপর হামলা ঘটনাটি দুঃখজনক। তবে রাস্তায় বেড়া দেয়া ও কেটে ফেলার ঘটনাটি কেউই আমাকে জানায় নি।

ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রকিব জানান, ঘটনা শুনে আমি থানা পুলিশের একটি ফোর্স সেখানে পাঠাই। মারামারির ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে।

100 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়