IMG 20200914 201216

‘ওসি প্রদীপের সাথে আমাদের ভাবলে হবেনা, শাহরাস্তি থানার শতকরা ৯৯ ভাগ পুলিশ অফিসার সৎ’

শাহরাস্তিতে পুলিশের উঠান বৈঠকে ওসি শাহ্ আলম

মোঃ কামরুজ্জামান সেন্টু :

শাহরাস্তি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ্ আলম বলেছেন, চাঁদপুর জেলার মধ্যে শাহরাস্তির আইন শৃঙ্খলা সবচেয়ে ভালো অবস্থানে আছে, যা বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থান। এটা শুধু আমার কৃতিত্ব নয় এটা এই এলাকার সংসদ সদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তমের কৃতিত্ব।

তিনি দলমত নির্বিশেষে সবার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তাঁকে কেউ ফোন দিলে তিনি সেটা ডায়েরীর মধ্যে লিপিবদ্ধ করে রাখেন। সেটা যদি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, অফিসার ইনচার্জ বা কোন চিকিৎসকের কাজও হয়ে থাকে তিনি সংশ্লিষ্ট দফতরের কর্মকর্তাদের এই বিষয়ে তাগিদ দিয়ে থাকেন।

এই ধরনের অভিভাবক পাওয়া ভাগ্যের বিষয়। সারা বাংলাদেশের পুলিশের সাথে শাহরাস্তির পুলিশের তুলনা চলে না। মানুষ কোন বিপদে পড়লে প্রথমে আল্লাহর নাম নেন, এরপর পুলিশকে স্মরণ করেন।

কোন ঘটনা ঘটার সাথে ওসিকে ফোন দিন। পুলিশ সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাবে। এখানে এমন কোন নেতা নেই যে আপনাদের হুমকি-ধমকি দিবে। এসব যারা করবে তাদের হাজতে ঢুকানো হবে।

আপনাদের ট্যাক্সের টাকায় আমাদের বেতন, আমরা চাইনা এই এলাকার মাননীয় সংসদ সদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তমের বদনাম হোক, শাহরাস্তি উপজেলার বদনাম হোক। ওসি প্রদীপের সাথে আমাদের ভাবলে হবেনা, শাহরাস্তি থানার শতকরা ৯৯ ভাগ পুলিশ অফিসার সৎ, কোন অফিসার যদি মামলা বা জিডি হতে টাকা চায় সরাসরি আমাকে জানাবেন। আপনাদের টাকাও খরচ হবেনা।

টাউট বাটপারের মাধ্যমে থানায় যাওয়ার দরকার নেই আপনারা সরাসরি আমার কাছে যাবেন।

গত রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার টামটা দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের শিবপুর গ্রামে অফিসার ইনচার্জ আয়োজিত মাদক, বাল্যবিবাহ, চুরি, ডাকাতি, ইভটিজিং, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও যানজট প্রতিরোধে সচেতনতামূলক উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

ওই গ্রামের প্রবীণ সফিউল্যাহ বিএসসির সভাপতিত্বতে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী হুমায়ূন কবীর, থানা সেকেন্ড অফিসার এসআই মোঃ আঃ আউয়াল, বিট অফিসার এসআই শেখ কামাল উদ্দিন, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জসিম উদ্দিন জনি, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশের দফতর সম্পাদক সাংবাদিক কামরুজ্জামান সেন্টু, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ জাকির হোসেন প্রমুখ।

বৈঠকে ওই এলাকার জনৈক মনোয়ারা বেগমের বিরুদ্ধে মাদক, অসামাজিক কার্যকলাপ ও স্থানীয় প্রতিবাদী লোকজনকে মামলা দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ করলে অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ্ আলম আরও বলেন, সমাজ খারাপ হয় ভালো লোকদের নিরবতার কারণে। আপনাদের সকলের বক্তব্যে এই এলাকার মনোয়ারা বেগমের নাম উঠে এসেছে। যে নিজের মেয়ের কথিত কাবিননামা প্রদর্শন করে ৮ লক্ষ টাকার জন্য ছেলেপক্ষের জন্য মামলা করেছে। পুলিশের তদন্তে ওই কাবিননামা ভুয়া প্রমানিত হয়েছে। আপনারা তার বিভিন্ন অপকর্মের সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে পুলিশে ফোন দিবেন। মাদক বা অসামাজিক কোন কার্যক্রম শাহরাস্তির বুকে চলবে না। প্রতিটা নাগরিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য। এটা সংবিধানের ও আইনের কথা। তবে কাউকে হয়রানির উদ্যেশ্যে এসব করা যাবে না।

Kamruzaman santu

আমরা খবরের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, চাঁদপুর রিপোর্ট গুজব প্রচার করে না

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রি. ৩০ ভাদ্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫ মুহররম ১৪৪২ হিজরি, সোমবার

627 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন