হাইমচরে পারুলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগ

সাহেদ হোসেন দিপু, হাইমচর প্রতিনিধি :
চাঁদপুর জেলার হাইমচর উপজেলার পশ্চিমচরকৃষ্ণপুর গ্রামের পারুল বেগমকে হত্যা করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে। শাশুরী, ননদ এবং জামাই যৌথ ভাবে সুপরিকল্পিতভাবে হত্যা করে ফাসিতে ঝুলিয়ে রেেখছেন পারুল বেগমকে এমনটাই অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসীসহ নিহত পারুলের পরিবার।

গত কয়েকদির পূর্বে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় মিয়া নেপালের স্ত্রী ৪ সন্তানের মা পারুল বেগমকে। পারুলের মৃত্যুটি অনকেই আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দিলেও এলাকাবাসী তা মানতে রাজি নন।

এলাকাবাসীর দাবি, মিয়া নেপাল একজন নারী লোভী পুরুষ। তার সাথে তাল মিলিয়ে তার মা বোনও পাল্লা দিয়ে নির্যাতন করতেন পারুল বেগমকে। সন্তানদের দিকে তাকিয়ে সকল অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করেও বুকে পাথর বেধে ছিলেন পারুল। বাপের বাড়ির সহযোগীতায় ছেলে মেয়েদের নিয়ে কোনরকম জীবন কাটিয়ে ছিলেন নিহত পারুল। অত্যান্ত সুপরিকল্পীত ভাবে ঠান্ডা মাথায় রাতের আধারে পারুলকে হত্যা করে ফাসিতে ঝুলিয়ে রেখেছেন তার শশুর বাড়ির লোকজন। পারুল হত্যাকে ধামাচাপা দিতে স্বামী মিয়া নেপালকে থানায় আতœসমর্পন করিয়েছেন কতিপয় প্রভাবশালী লোকজন। মিয়া নেপালের মা এবং বোনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রকৃত ঘটনা বের হয়ে আসবে বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।

নিহত পারুলের ছেলে শাহাদাত জানান, আমি প্রতিদিন রাতে আমার মায়ের সাথে ঘুমাতাম। সেদিন রাতে আমার বাবা আমাকে আমার দাদির ঘরে পাঠিয়ে দেয়। রাতে আমার দাদী অনেকখন ঘরের বাহিরে ছিলেন। রাতে ক্লান্ত অবস্থায় ঘরে আসলে আমি তাকে জিজ্ঞাসা করি কোথায় গিয়েছিল, আমার দাদী আমাকে বলে আমি পান খাইতে পাশের বাড়ি গিয়েছিলাম। ঐ রাতেই শুনি আমার মা নাকি ফাসি দিয়েছে। আমার মা’ আতœহত্যা করেনি মাকে তারা মেরে পেলেছে।

নিহত পারুলের ভাই রাসেল জানান, আমার বোনকে তারা সুপরিকল্পীত ভাবে হত্যা করেছে। হত্যার ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে তারা বোনের গলায় ওড়না দিয়ে ফাসিতে ঝুলিয়ে রাখে। আমার বোনের উপর তার জামাই, শাশুরী এবং ননদ বিভিন্ন সময়ে অত্যাচার করতো। বোন নিহত হওয়ার আগের দিনও তার স্বামী তাকে মারধোর করেছে এটা এলাকার অনেকেই জানে। আমার বোন অনেক কষ্ট সহ্য করে বেচে ছিল। সে কোন ভাবেই এ সন্তানদের রেখে আতœহত্যা করবে না। তাকে নিশ্চই তারা হত্যা করেছে। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে আমার বোনের হত্যার বিচার সুনিশ্চিত করতে আমি চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার মহোদয়ের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

আমরা খবরের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, চাঁদপুর রিপোর্ট গুজব প্রচার করে না

২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রি. ০৬ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরি, সোমবার

183 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়