Health logo

আইবিএস বা ইরিটেবল বাউয়েল সিনড্রমের কারণ ও প্রতিকার

আইবিএস বা ইরিটেবল বাউয়েল সিনড্রম কী?

আইবিএস বা ইরিটেবল বাউয়েল সিনড্রম মূলত অন্ত্রের রোগ। যা বাউয়েল বা অন্ত্রের মুভমেন্টের নাটকীয় পরিবর্তনের ফলে সংগঠিত হয় এবং আইবিএস ডাইজেস্টিভ সিস্টেমকে প্রভাবিত করে। যাদের আইবিএসের সমস্যা রয়েছে, ভুগে থাকেন, তারা প্রায়ই হজমের সমস্যায় ভুগে থাকেন। কিছুদিন আগেও বাংলাদেশে আইবিএসে আক্রান্তের সংখ্যা কম ছিল। কম থাকার কারণ হিসেবে বলা যায় যে, আইবিএস সম্বন্ধে মানুষের ধারণা কম ছিল। তবে বর্তমানে সচেতনতা বাড়ার কারণে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে গেছে।

যদিও বর্তমানে মানুষ অনেক সচেতন তবুও রোগটি কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করবেন, এ বিষয়টি অনেকেই জানেন না, তাদের জন্য আমার আজকের এই লেখা। সুস্থ থাকার জন্য সঠিক তথ্য জানুন এবং মেনে চলুন।

আইবিএস বা ইরিটেবল বাউয়েল সিনড্রমের কারণ কী?

আইবিএস বা ইরিটেবল বাউয়েল সিনড্রমের সঠিক কারণ এখনো অজানা। ঠিক কী কারণে আইবিএস হয়, তা এখনো গবেষণার বিষয়।

তবে বংশগত কারণ, মানসিক হতাশা বা অবসাদ, ইনফেকশন, ক্ষুদ্রান্ত্রে অতিরিক্ত ব্যাক্টেরিয়ার উপস্থিতি, হরমোনাল ইমব্যালেন্স, খাদ্যের প্রতি সংবেদনশীলতা, লিভারের যে কোনো ধরনের সমস্যা, মেডিসিন, অপারেশন প্রভৃতি কারণে যে কোনো সময় আইবিএস সমস্যা হতে পারে।

আইবিএসের সঙ্গে স্নায়বিক দুর্বলতার সম্পর্ক রয়েছে। পুরুষ-মহিলা এমনকী শিশুরাও আইবিএসে ভুগে থাকেন। পুরুষদের তুলনায় মহিলারা এই রোগে বেশি ভুগে থাকেন। সাধারণত, ১৮-৩৫ বছর বয়সী মানুষ এই সমস্যায় বেশি ভুগে থাকেন।

তবে যাদের বয়স বেশি এবং আইবিএস আছে, তাদের জন্য এ সমস্যাটি বেশি ক্ষতিক্ষর। অধিকাংশ ক্ষেত্রে দেখা যায়, যাদের আইবিএস এর সমস্যা আছে, তারা খুব ছোটোবেলা থেকেই কারণ ছাড়া বিভিন্ন সময় পেটে ব্যাথায় ভুগতেন।

যদিও আইবিএস খুবই অপ্রীতিকর এবং সমস্যা সৃষ্টি করে, তবে সঠিক জীবন-যাপন পদ্ধতি এবং যে খাবারগুলো আইবিএস এর সমস্যাগুলোকে বাড়িয়ে দেয়, সেই খাবারগুলো বাদ দিলে একসময় আইবিএসের সমস্যা একদম অদৃশ্য হয়ে যায়।

পরামর্শ :
দুধ, গরুর মাংস, চিংড়ি মাছ, আঁশযুক্ত খাবার বা শাকসবজি, ভাজাপোড়া, অতিরিক্ত তেল এবং মসলা জাতীয় খাবার, অতিরিক্ত ঝাল খাবার, সালাদ, বাইরের অস্বাস্থ্যকর খাবার, মিষ্টি জাতীয় খাবার, চিনি জাতীয় খাবার খাবেন না।
গম এবং গম দিয়ে তৈরি খাবার খাবেন না। রুটির বদলে ভাত খাবেন।
প্রচুর পরিমাণে পানি পান করতে হবে। প্রয়োজনে স্যালাইন খেতে হবে।
খাবার ধীরে ধীরে ভালভাবে চিবিয়ে খাবেন। তাড়াহুড়ো করে খাবার খাবেন না।
একবারে অনেক খাবার খাবেন না। অল্প অল্প করে কিছুক্ষণ পর পর খাবেন।
* প্রতিদিন সকালে টক দই খাবেন। রাতে টক দই খাবেন না।
রান্নায় গুঁড়া মরিচ ব্যবহার করবেন না।
বাসি খাবার খাবেন না।
দীর্ঘক্ষণ খালি পেটে থাকবেন না।
প্রতিদিন পর্যাপ্ত ব্যায়াম করবেন।
প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমাতে হবে।

আইবিএস এর লক্ষণ :

আইবিএস মূলত একটি সাধারণ গাঁট ডিজঅর্ডার। যাদের আইবিএসের সমস্যা রয়েছে, তারা নিম্নোক্ত সমস্যাগুলোয় ভুগে থাকেন।

* স্বাভাবিক বাউয়েল মুভমেন্টে পরিবর্তন হয়, ফলে ডায়রিয়া বা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দেখা দেয়।

* পেটে প্রচণ্ড ব্যথা হয়।

* মলের রং, আকার এবং ঘনত্বে পরিবর্তন।

* পেট ফাঁপা এবং পেটে মোচড় দেয়া।

* পেটে গ্যাস এবং পেট জ্বালা।

* পেট কামড়ানো, ঢেঁকুর ওঠা।

* বমি, ক্ষুধা কমে যাওয়া, খুব অল্পতে পেট ভরে যাওয়া, মুখের স্বাদ নষ্ট হয়ে যাওয়া।

* হতাশা, অবসাদ, ক্লান্তিবোধ।

* ঘুমের সমস্যা, পেশিতে ব্যাথা।

* ঘন ঘন প্রস্রাবের চাপ বৃদ্ধি পাবে।

* যৌন ক্ষমতা ও ইচ্ছে কমে যাওয়া।

সুতরাং কারো যদি উপরের লক্ষণগুলো দেখা দেয়, তবে যত দ্রুত সম্ভব ডাক্তার দেখান। যদিও আইবিএস পুরোপুরি সারিয়ে তোলার জন্য কোনো ওষুধ আবিষ্কার হয়নি। তবে এটি মোকাবিলার জন্য আইবিএসএর ধরন অনুযায়ী সঠিক খাদ্য নির্বাচন এবং সেই সঙ্গে নিজের লাইফস্টাইলে পরিবর্তন এবং শারীরিক ব্যায়াম মোক্ষম হাতিয়ার। আর এক্ষেত্রে একজন পুষ্টিবিদ আপনাকে সাহায্য করতে পারেন। তাই একজন পুষ্টিবিদের পরামর্শ নিন।

আইবিএসের প্রকারভেদ :

আইবিএস বা ইরিটেবল বাউয়েল সিনড্রম মূলত দুই প্রকার :-

* আইবিএস রিলেটেড ডায়রিয়া।

* আইবিএস রিলেটেড কনস্টিপশন।

তবে কারো ক্ষেত্রে ডায়রিয়া বা কনস্টিপশন- এ দুই ধরনের সমস্যা একসঙ্গেই থাকে।

চিকিৎসা :

এই রোগের জন্য কমপক্ষে ছয়ম মাস একটানা ঔষধ সেবন করতে হয়। তাহলে এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

 

সারাদেশে অত্যন্ত বিশ্বস্ততার সাথে কুরিয়ার যোগে অর্ডার অনুযায়ী ঔষধ পাঠানো হয়। বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন।

 

বাংলাদেশের যে কোনো জেলায় কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমেও দু’ থেকে তিন দিনের মধ্যেই ঔষধ পেতে পারেন।

অফিসের ঠিকানা : হাকীম মিজানুর রহমান, ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, গাউছিয়া টাওয়ার (৩য় তলা), রামপুরবাজার, হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

Hakim Mizanur Rahman nk night king add

 

 

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

(শতভাগ বিশ্বস্ত ও প্রতারণামুক্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান)

Dr. Mizanur Rahman (DUMS)

Ibn Sina Health care, Hazigonj, Chandpur.

Mobile.

01777988835

01762240650

01777988889

শ্বেতী, যৌনরোগ, হার্পিস, পাইলস, লিকুরিয়া, ব্রেনস্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাক, ডায়াবেটিস, ক্যান্সার, উচ্চ রক্তচাপ, বাত বেদনা, গাউট, পক্ষাঘাত, চর্মরোগ, অ্যালার্জি, জন্ডিস, লিভার সমস্যা, হার্ট ও শিরার ব্লকেজ, স্ত্রী রোগ, স্বপ্নদোষ নিরাময়-সহ সর্বরোগের চিকিৎসা করা হয়।

শেয়ার করুন