editorial

জাতীয় সম্পদ ইলিশ রক্ষায় আরো কঠোরতা দরকার!

সম্পাদকীয়…

জেনে শুনে যারা বার বার অবাধ্য হয় ও গোঁয়ার্তুমি করে তাদের প্রতি কঠোর হওয়া যথার্থ। হওয়া উচিতও বটে। যারা ভালোটা বুঝেও মানতে চায় না, অসৎভাবে কর্মকা- করে গোপনে গোপনে তাদের জন্যে শাস্তির ব্যবস্থা করা দরকার। উপরন্তু যারা প্রকাশ্যে অবাধ্যতার প্রতিফলন দেখায় তাদের জন্যে কঠোরতার দরকার আছে বলে মনে করি। আমরা সবাই জানি যে, ইলিশ সংরক্ষণের জন্যে সরকারিভাবে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সকল পর্যায় থেকে বিভিন্নভাবে জেলেদের সংযত হওয়ার জন্যে, ইলিশ মাছ বড় হওয়ার জন্যে বা ইলিশের বংশবৃদ্ধির জন্যে উপদেশ দিয়ে চলেছে, তবুও কিছু দুষ্টু জেলে নদীতে যেতে শুরু করেছে।

প্রিয় সময়ে ‘স্বরূপকাঠীতে ইলিশ শিকারের অপরাধে ৬ জেলেকে জরিমানা’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের মাধ্যমে আমরা জেনেছি, সেসব অবাধ্য জেলেদের শাস্তি দেয়া হয়েছে। কেননা স্বরূপকাঠীতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেছে ঐ জেলেরা। নদীতে ইলিশ শিকার করে তারা চরম অপরাধ করেছে। সবচেয়ে বড় কথা হলো, তারা সরকারি নির্দেশনা অমান্য করেছে, যে নির্দেশনা জনস্বার্থেই ছিলো। সেই ৬ জেলেকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করাটা যথার্থ হয়েছে বলে আমরা মনে করছি। ভ্রাম্যমান আদালত উপযুক্ত শাস্তি তাদের দিতে পেরেছে। এভাবে অভিযান চালিয়ে এ ধরনের জেলেদের আরো কঠোর শাস্তি দেয়ার দরকার আছে।

প্রকাশিত সংবাদের মাধ্যমে আমরা জেনেছি যে, রাতের বেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে উপজেলার সন্ধ্যা নদীতে ঐ ৬ জেলেকে গ্রেফতার করেছে। সেসময় তাদের কাছে বাইশটি ইলিশ মাছ পাওয়া গিয়েছিলো। সেই সাথে নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল আট হাজার মিটার ও ব্যবহৃত তিনটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা তাদের থেকে জব্দ করেছে। এরপর তাদেরকে পাঁচ হাজার টাকা করে মোট ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা করেছে।

আমাদের মনে হয়, কিছু দুষ্টু জেলেদের প্রদর্শিত দুঃসাহসের কারণে অন্য জেলেরাও নিষেধাজ্ঞা অমান্য করতে সাহস পায়। অপরদিকে দুষ্টু জেলেরা অন্যদের উসকে দিতে পারে। ফলে তাদের দল আরো ভারি হয়ে যায়। আর তারা দল বেঁধে নদীতে দুঃসাহসের সাথে জাটকা ও মা ইলিশ সংরক্ষণ করে। কিন্তু আমরা সকলেই জানি যে, মা ইলিশ সংরক্ষণ করলে লাভের চেয়ে ক্ষতিই বেশি হয়। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় জেলেরা। সেই সাথে দেশ ও দেশের মানুষ। বিরাট অর্থনৈতিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয় সকলকে। সেদিকটি চিন্তা করে প্রশাসনকে এভাবে কঠোর পদক্ষেপের মাধ্যমে অবাধ্য জেলেদের শাস্তি দেয়া ও বার বার অভিযান চালিয়ে ইলিশ রক্ষায় পদক্ষেপ গ্রহণ করা দরকার। ইলিশ সংরক্ষণে আমরা ভ্রাম্যমাণ আদালতের এমন কঠোর পদক্ষেপকে স্বাগত জানাই।

 

আমরা খবরের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, সঠিক সংবাদ পরিবেশনই আমাদের বৈশিষ্ট্য

২৮ অক্টোবর ২০২০ খ্রি. ১২ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরি, বুধবার

Add piles sex Diabeties all

70 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন