বিশ্বনবীর অবমাননা : ফ্রান্সের বিরুদ্ধে কচুয়ায় স্মরণকালের বিশাল বিক্ষোভ

ওমর ফারুক সাইম, কচুয়া প্রতিনিধি :

ফ্রান্সের রাষ্ট্রীয় তৎপরতায় মানবতার নবী, বিশ্বনবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের অবমাননার প্রতিবাদে চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড ও নবীপ্রেমিক তাওহীদি জনতার উদ্যেগে আজ বৃহস্পতিবার বাদ জোহর কচুয়া কেন্দ্রীয় বড় মসজিদ প্রাঙ্গন থেকে স্মরণকালের বৃহ বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কচুয়া জামিয়া ইসলামিয়া আহমদিয়া মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আবু হানিফ এর সভাপতিত্বে বিক্ষোভপূর্ব ও পরে বক্তব্য রাখেন জামিয়া ইব্রাহীমিয়া উজানী মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মাহবুবে এলাহী, অত্র মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা মিজানুর রহমান, কচুয়া কেন্দ্রীয় বড় মসজিদের খতিব ও কচুয়া জামিয়া ইসলামিয়া আহমদিয়া মাদরাসার শিক্ষাসচিব মুফতী মাহবুবুর রহমান, নিশ্চিন্তপুর ডি.এস ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার হেড মুহাদ্দিস মাওলানা নুরুজ্জামান প্রমুখ ওলামায়ে কেরাম।

ভাষনে বক্তারা বলেন, বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব। তাঁকে ব্যঙ্গ করে অশ্লীল কার্টুন প্রদর্শন করে ফ্রান্স সরকার যে দাম্ভিকতার পরিচয় দিচ্ছে। এ ধরনের দাম্ভিকতা প্রিয় নবীর ইজ্জতের উপর চরম আঘাত হেনেছে।

তারা বলেন, সর্বস্তরের মুসলমানের উচিত নবীর ইজ্জত হরনকারীর সাথে কোনো ধরনের সম্পর্ক না রাখা। এজন্য ফ্রান্সের সমস্ত পণ্যকে বয়কট করে তাদেরকে ক্ষমা চাইতে চাপ প্রয়োগ করা ঈমানী দাবি।

তারা বলেন, সরকারের উচিত জাতীয় সংসদে ফ্রান্স সরকারের এহেন নেক্কারজনক কর্মকাণ্ডের জন্য নিন্দা পাশ করা।

তারা বলেন, দেশীয় যেসব নাস্তিক আছে, যারা প্রিয় নবী ও ইসলামের অবমাননা করেই যাচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে মৃত্যুদন্ডের আইন পাশ করা।

এছাড়া বক্তারা সালাম ও আল্লাহ হাফেজ শব্দ নিয়ে কটুক্তি করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর জিয়া রহমানকে বহিষ্কারের দাবিও তুলেন ভাষনে।

আমরা সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, পাঠকের আস্থাই আমাদের মূলধন

২৯ অক্টোবর ২০২০ খ্রি. ১৩ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরি, বৃহস্পতিবার

44 জন পড়েছেন

Recommended For You

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়