chandpur report 547

চাঁদপুরে ইলিশ সংরক্ষণে কোস্টগার্ডের সাঁড়াশি অভিযান

চাঁদপুর প্রতিনিধি :

চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খানের নেতৃত্বে মা ইলিশ সংরক্ষণে নদীতে বিশেষ অভিযান চালানো হয়েছে। শনিবার রাত আটটা থেকে রোববার ভোররাত পর্যন্ত সদর উপজেলার মেঘনা নদীর বিভিন্ন স্থানে এই বিশেষ অভিযান চলে।

এতে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জামাল হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী আব্দুর রহিম, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুল বাকীসহ মা ইলিশ সংরক্ষণে জেলা টাস্কফোর্সের সদস্য, জেলা ও নৌ পুলিশ, কোস্টগার্ড এবং মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তা এবং সাংবাদিকরা অংশ নেন।

এ সময় একটি লঞ্চ ও বেশ কয়েকটি স্পিডবোট এই অভিযানে এমন শতাধিক ব্যক্তি যোগ দেন।

অভিযান চলাকালে শহরের তিন নদীর মোহনায় মাছ ধরার সময় পাঁচ জেলেকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উজ্জ্বল হোসাইন আর্থিক জরিমানা আদায় করে জেলেদের ছেড়ে দেন।

এর আগে সন্ধ্যায় সদর উপজেলার পদ্মা নদীর রাজরাজেশ্বর এলাকায় নৌ পুলিশের টহল দলের ওপর একদল জেলে হামলা চালানোর চেষ্টা করে। এসময় কয়েকটি মাছ ধরার নৌকা থেকে জেলেরা নৌ পুলিশের স্পিডবোট লক্ষ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এই ঘটনায় অভিযানে অংশ নেওয়া চাঁদপুর নৌ থানার ওসি কবির হোসেন খান স্পিডবোট যোগে তার দলবল নিয়ে হামলাকারীদের ধাওয়া করেন। এতে কেউ আহত হননি।

এদিকে, অভিযানে অংশ নিয়ে চাঁদপুরের পদ্মা মেঘনা নদীতে প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ সংরক্ষণ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান বলেন, সবার সহযোগিতা নিয়ে যে কোনো মূল্যে সরকারের নেওয়া পদক্ষেপগুলো বাস্তবায়ন করা হবে।

অন্যদিকে, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুল বাকী বলেন, আজ শনিবার রাতেই ভরা পূর্ণিমা শেষ হচ্ছে। তাই এই সময় মা ইলিশ শেষবারের মতো ডিম ছাড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে নদীতে তাদের চলাচল নির্বিঘ্ন করতে জেলেসহ সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা চান তিনি।

শনিবার রাত এগারোটায় জেলা প্রশাসক এই অভিযান থেকে ডাঙায় ফিরে এলেও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামানের নেতৃত্বে রাতভর অভিযান অব্যাহত থাকে। এসময় বিপুল পরিমাণ জাল জব্দ করে পরে তা আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, গত ১৪ অক্টোবর থেকে আগামী ৪ নভেম্বর পর্যন্ত মা ইলিশ সংরক্ষণে নদীতে সবধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এসময় ইলিশ বিক্রয়, পরিবহন ও মজুদও নিষিদ্ধ থাকবে।

87 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন