chandpur report 1088

ছাত্রদের বলাৎকার করে শপথ করাতেন লক্ষ্মীপুরের মাদরাসা শিক্ষক

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :

লক্ষ্মীপুরে একাধিক শিশু ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে একটি বেসরকারি মাদরাসার পরিচালক ও মৌলভী মোবারক হোসেনকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) রাতে সদর উপজেলার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের পশ্চিম কালিদাসেরবাগ এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

এর আগে স্থানীয় মুসলিমাবাদ তা’লীমুল কোরআন ইসলামী একাডেমী ভবনে মৌলভী মোবারক হোসেনকে অবরুদ্ধ করে রাখেন স্থানীয়রা। এসময় খবর পেয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসীম উদ্দীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে ৬ জন ভিকটিমসহ অভিযুক্ত মোবারক হোসেনকে আটক করে পুলিশ।

এ ঘটনায় ভিকটিম এক ছাত্রের মা বাদী হয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত মোবারক হোসেন সদর উপজেলার মুসলিমাবাদ তা’লীমুল কোরআন ইসলামী একাডেমীর পরিচালক এবং রায়পুর উপজেলার চর কাচিয়া গ্রামের শাহ আলমের ছেলে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শিক্ষক মোবারক হোসেন অন্তত ৬ জন শিশুছাত্রকে একাধিকবার বলাৎকার করেছে। এ বিষয়টি গোপন রাখতে তিনি ছাত্রদের ভয়ভীতি দেখিয়ে শপথ করান এবং তা মোবাইলফোনে ভিডিও ধারণ করে রাখেন। সম্প্রতি এক শিশুর পায়ুপথ দিয়ে রক্ত ঝরায় ঘটনাটি জানাজানি হয়।

স্থানীয়রা জানায়, ২০১৮ সালে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের পশ্চিম কালিদাসেরবাগ এলাকায় ‘মুসলিমাবাদ তা’লীমুল কোরআন ইসলামী একাডেমী’ নামে একটি প্রাইভেট মাদরাসা চালু করেন মোবারক হোসেন। তিনি স্থানীয় মসজিদে ইমামতি করার পাশাপাশি এ মাদরাসাটি চালু করেন। এখানে ৩০ জন ছাত্র আবাসিকে থেকে পড়া লেখা করে আসছিল।বলাৎকারের ঘটনায় স্থানীয় প্রশাসন মাদরাসাটি বন্ধ ঘোষণা করে এবং ছাত্রদের বাড়ি পাঠিয়ে দেয়।

লক্ষ্মীপুর জেলার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার রিয়াজুল কবির জানান, একাধিক শিশু ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মোবারক হোসেন নামে একটি বেসরকারি মাদরাসার পরিচালক ও মৌলভীকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে

আমরা খবরের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, সঠিক সংবাদ পরিবেশনই আমাদের বৈশিষ্ট্য

০৪ নভেম্বর ২০২০ খ্রি. ১৯ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরি, বুধবার

 Add piles sex Diabeties all

59 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন