chandpur report 1213

‘ছেংগারচর পৌরসভাকে মডেল পৌরসভায় হিসেবে গড়ে তুলবো’ 

গোলাম নবী খোকন :

চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর পৌর সভায় সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে ক্লিন ইমেজ হিসেবে জনপ্রিয়তায় সবার শীর্ষে অবস্থান করছেন ছেংগারচর পৌরসভার বিশিষ্ট শিল্পপতি, শিক্ষানুরাগী, সমাজ সেবক এবং ঢাকা মহানগর উত্তর গুলশান থানা আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মাহবুবুর রহমান সেলিম।

ছেংগারচর পৌর সভায় আগামী নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী উচ্চ শিক্ষিত ও বিশিষ্ট শিল্পপতি, সমাজ সেবক ও আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুবুর রহমান সেলিম ছাত্রজীবন থেকেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও স্বপ্ন বুকে ধারণ করে নিরবেই দীর্ঘদিন থেকে মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভায় দরিদ্র অসহায় জনগোষ্ঠীর মানুষকে বিভিন্ন ভাবে সহযোগীতা করে যাচ্ছেন।

ছাত্রজীবন থেকে তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের একজন কর্মী হিসেবে নিজেকে নিয়োজিত ও সম্পৃক্ত রেখেছেন, বর্তমানে তিনি ঢাকা মহানগর উত্তর গুলশান থানা আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

পৌর এলাকার সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের সহায়তা করার ফলে ছেংগারচর পৌরসভাজুড়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে তার একটা পরিচ্ছন্ন ও নিজ্বস্ব ব্যক্তি ইমেজ তৈরী হয়ে আছে অনেক আগে থেকেই। ছেংগারচর পৌরসভার আগামী নির্বাচনে সবকিছুও তার অনুকুলে রয়েছে বলে জানান তিনি।

নির্ভর যোগ্য বিভিন্ন সুত্র বলছে, আগামী ছেংগারচর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে তাকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দিলে তিনি নিশ্চিতেই বিজয় ছিনিয়ে আনতে পারবেন। প্রশাসনের পাশাপাশি সকল পেশার মানুষের সাথে তার সম্পর্ক সু-মধুর।

আওয়ামী লীগের দলীয় নেতা-কর্মি সমর্থকসহ জনসাধারণের মধ্যে আলোচনা চলছে যদি নবীনদের ও প্রবীনদের মধ্যে সমন্বয় করে ছেংগারচর পৌর সভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় সম্ভাব্য মেয়র পদে মনোনয়ন দেয়া হয়। এক্ষেত্রে সবার চাইতে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন বিশিষ্ট শিল্পপতি এবং ঢাকা মহানগর উত্তর গুলশান থানা আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মাহবুবুর রহমান সেলিম। ক্লিনম্যান হিসেবে দলমত নির্বিশেষে ছেংগারচর পৌর বাসীর কাছে তার ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব মাহবুবুর রহমান সেলিম ছাত্র জীবনেই বঙ্গবন্ধুর আর্দশে অনুপ্রাণিত হয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন এবং ছাত্রলীগ-যুবলীগ হয়ে এখন তিনি ঢাকা মহানগর উত্তর গুলশান থানা আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতি পালন করে চলেছেন।

ছেংগারচর পৌরসভার বর্তমান বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে অসহায় ৫ হাজার পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাক্স ও নগদ অর্থ প্রদান করেন। বিভিন্ন এলাকায় সামাজিক উন্নয়ন, সমাজ সেবা, ক্রীড়া ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে দীর্ঘদিন ধরে তিনি জড়িয়ে রয়েছেন নবীন প্রবীনসহ সকল শ্রেনী পেশার মানুষের হৃদয়ে। ফলে তাঁর ব্যক্তিগত কোনো চাওয়া-পাওয়া নেই, মূত্যুর আগে তিনি ছেংগারচর পৌর বাসীর জন্য একটা কিছু করে যেতে চান যেনো মূত্যুর পরেও তার করে যাওয়া কাজের মাধ্যমে মানুষ তাকে স্মরণ করেন।

ছেংগারচর পৌর বাসীর অভিমত, এসব বিবেচনায় বিশিষ্ট শিল্পপতি এবং আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব মাহবুবুর রহমান সেলিম হতে পারে পৌরসভায় আওয়ামী লীগের দলীয় মেয়র প্রার্থী। অপর দিকে বিজয়ী হবার উজ্জ্বল সম্ভবনা তারই বেশী বলে দলের নেতা-কর্মীরা মনে করেন। তিনি আগামী পৌর নির্বাচনে সকলের দোয়া ও সহযোগীতা চেয়েছেন।

এব্যাপারে মাহবুবুর রহমান সেলিম বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা, এবং চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল ভাই যদি আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেয়, তাহলে আমি অবশ্যই জনগণের ভোটে আমি নির্বাচিত হয়ে পৌর বাসির খেদমত করার সুযোগ পাব।

তিনি আরও বলেন, ছেংগারচর পৌরসভাকে ঢেলে সাজাতে চাই, শিক্ষা বিস্তার, মাদক মুক্ত, শতভাগ স্যানিটেন, বিশুদ্ধ খাবার পানির সুব্যবস্থা ও সকলের সমঅধিকার প্রতিষ্ঠাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড গ্রহণের মাধ্যমে ছেংগারচর পৌরসভাকে একটি মডেল পৌর সভায় উন্নীত করে মরেও সবার হৃদয়ে বেঁচে থাকতে চাই। তিনি সকলের কাছে দোয়া ও আন্তরিক সহযোগীতা প্রত্যাশা করেছেন।

আমরা সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, পাঠকের আস্থাই আমাদের মূলধন

আপডেট সময় : ১২:০৭ পিএম

১৬ নভেম্বর ২০২০ খ্রি. ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরি, সোমবার

শেয়ার করুন