chandpur report 1197

মতলব উত্তরে কৃষকদের নতুনভাবে স্বপ্ন দেখাচ্ছে বাউল জাতের লাউ

সফিকুল ইসলাম রানা, মতলব উত্তর প্রতিনিধি :

মতলব উত্তর কৃষকরা নতুনভাবে স্বপ্ন দেখাচ্ছে বাউল জাতের লাউ। স্বল্প বিনিয়োগ অধিক লাভবান হওয়ায় চলতি শীত মৌসুমে জেলার কৃষকরা ঝুঁকছেে এই লাউ চাষে।

এদিকে, বাজার দরও ভালো হওয়ায় কৃষকরা তুলছেন তৃপ্তরি ঢেকুর। কীটনাশক মুক্ত এই সবজি ছেংগারচর বাজার ছাড়িয়ে স্থান দখল করছেে ঢাকার নামদামি বিপণী বিতানগুলোতেও।

গত বছর কৃষি বিভাগের পরার্মশে ঢালিকান্দির শিক্ষিত যুবক আবুল কালাম পরীক্ষামূলক বাউল জাতের লাউ আবাদ করেছিল। ফলন ভালো হওয়ায় চলতি শীত মৌসুমে মতলব উত্তর একটি পৌরসভায় (১৪)টি ইউনিয়ন মাঠে মাঠে চাষ হয়েছে নতুন এই জাতের লাউ।

ছেংগারচর পৌরসভা ঢালিকান্দি গ্রামের কৃষক কাউসার, “বান পদ্ধতিতে এই জাতরে লাউ আবাদে বিঘাপ্রতি খরচ হয় ১৪ থেকে ১৫ হাজার টাকা। কিন্তু মাত্র দুই মাসরে ব্যবধানে লাউ বিক্রি করে পাওয়া যায় ৯৫ হাজার থেকে এক লাখ টাকা র্পযন্ত। সর্ম্পূণ কীটনাশকমুক্ত বাউল লাউ চাষে ক্ষতিকর পোকা দমনে ব্যবহার করা হয়েছে কালার ট্র্যাপ ও ফেরোমেন ট্র্যাপ নামে দুটি পোকা দমনরে ফাঁদ। স্বল্প সময়ে অধিক ফলনশীল এ জাতের লাউ উৎপাদন করে স্থানীয় চাহিদা তো মিটিই সেইসাথে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন বিপনী বিতানগুলোতে সরবরাহ করা হচ্ছে।

স্থানীয় কৃষি বিভাগ বলছে, বিষমুক্ত নিরাপদ ফসল উৎপাদনরে ব্যাপারে জোর দেওয়া হচ্ছে। আর এ জন্য ফসল উৎপাদনে বিশেষ ব্যবস্থায় পোকা দমনে কয়েকটি ফাঁদ ব্যবহার করা হচ্ছে। তারই ধারাবাহিতায় এ ধরনের ফসল উৎপাদন করার জন্য জেলার অন্যান্য কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

মতলব উত্তর উপজেলার কৃষি র্কমর্কতা সালাউদ্দিন জানান, চলতি মৌসুমে বাজার দর ভালো থাকায় বাউল লাউ চাষের দিকে আগ্রহ দেখিয়েছেন কৃষকরা। তারা মনে করেন, আগামীতেও বাজার দর ভালো থাকলে সামনের মৌসুমেও এ জাতের লাউয়ের চাষ ব্যাপক উৎপাদন সম্ভব হবে।

আমরা সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, পাঠকের আস্থাই আমাদের মূলধন

আপডেট সময় : ০৬:০৯ পিএম

১৪ নভেম্বর ২০২০ খ্রি. ২৯ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরি, শনিবার

শেয়ার করুন