মতলব উত্তরে সহস্রাধিক গাছের চারা উপড়ে ফেললো দুর্বৃত্তরা

মতলব উত্তর প্রতিনিধি :

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ঠাকুরচর পশ্চিম পাড়ায় একটি বাগান থেকে প্রায় ১ হাজার ৪০০ গাছের চারা উপড়ে ফেলেছে দুর্বিত্তরা। এতে বাগান মালিক মো. আবুল হাশিমের এক লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এরআগেও প্রায় গত ১৫ দিন আগে ১৫০ টি কলাগাছ কেটে প্রায় ২৫ হাজার টাকার ক্ষতি করে কে বা কাহারা।

ঠাকুচর পশ্চিম পাড়ার মৃত ফজলুল করিম মাস্টারের ছেলে বাগান মালিক মো. আবুল হাশিম বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনা অনুযায়ী খালি জায়গায় আমি আমার বাড়ির সামনে ১ একর জমিতে গাছের বাগান করেছি।

এতে কলা, পেঁপে, মরিচসহ কয়েকটি প্রজাতির গাছ রোপন করি। কিন্তু গত কয়েকদিন আগে কে বা কাহারা আমার বাগানের প্রায় ১৫০ টি চারা উপড়ে ফেলে। পরে আমি গত ১৭ নভেম্বর থানায় জিডি করি। এরপরও থেমে নেই দুর্বিত্তরা। আমি স্বপরিবারে ঢাকায় থাকি। এই সুযোগে গত ২৭ নভেম্বর রাতে দুর্বিত্তরা আমার সাথে শত্রুতা করে প্রায় ১ হাজার ৪০০ চারা উঠিয়ে ফেলে। এরমধ্যে কলাগাছের চারা ৬৩০ টি, পেঁপে চারা রয়েছে ৪০০ টি ও মরিচের চারা রয়েছে ৩৫০ টি। এ ঘটনায়ও মামলা পক্রিয়াধীন আছে বলে জানান তিনি।

আবুল হাশিমের স্ত্রী বেবী আক্তার মুঠোফোনে জানান, ১ মাস আগে গাছের চারাগুলো লাগানো হয়েছে। কিছুদিন আগেও কে বা কাহারা গাছের চারাগুলো উঠিয়ে ফেলে। পরে ওই সময় মতলব উত্তর থানার একটি অভিযোগ দায়ের করি। কিন্তু এখন আবার তারা অনেকগুলো চারা একসাথে উঠিফে ফেলে দিল। এতে মোট ১ লাখ ২৫ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আমাদের সাথে না পেরে আমাদের গাছের সাথে শত্রুতা করলো। আমি প্রশাসনের কাছে তদন্ত সাপেক্ষে সুষ্ঠু বিচার চাই।

এদিকে মতলব উত্তর থানার ওসি মো. নাসির উদ্দিন মৃধা বলেন, কে বা কাহারা শত্রুতা করে ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানা যায়নি। তবে তদন্ত চলছে, আশা করি দ্রুত অপরাধীদেরকে সনাক্ত করে আইনের আওতায় আনতে পারবো।

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়