chandpur report 1288

হাইমচরে তুচ্ছ ঘটনায় দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত ৬

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট :

চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলায় ক্ষেতের মাটি কাটাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ৬ জন গুরুতর আহত হয়ে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

২৫ নভেম্বর বুধবার সকালে ওই উপজেলার ২নং উত্তর আলগী ইউনিয়নের কমলাপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন কমলাপুর গ্রামের হাজী হোসেন আলী গাজীর ছেলে হাবিবুর রহমান গাজী (৬৫), তার স্ত্রী হাজেরা বেগম (৫০), ও ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান (১৮)।

এছাড়া প্রতিপক্ষ ইউনুস মিয়ার ছেলে ফরিদ গাজী (৪২), এবং লুৎফুর রহমান গাজীর স্ত্রী ফাহিমা বেগম (৪৫) ও তার ছেলে সাগর (১৮)।

ঘটনার বিবরণে জানা যায় তাদের পারিবারিক জমিতে মাটি কাটাকে কেন্দ্র করে তাদের উভয় পক্ষের মাঝে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

আহত হাবিবুর রহমান জানান, গত দু-তিন দিন পূর্বে তিনি তার জমি থেকে মাটি কেটে আনেন। ঘটনার দিন সকালে লুৎফুর রহমান গাজীর ছেলে সাগর ছুরি নিয়ে হাবিবুর রহমানের ঘরের সামনে গিয়ে তাদের জমি থেকে মাটি কেটে নিয়ে এসেছে বলে তার স্ত্রী হাজরা বেগমকে হুমকি-ধামকি প্রদান করেন। খবর পেয়ে তিনি এবং তার ছেলে তাদের ঘরের সামনে আসলে সাগর তাকে ছুরিকাঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে বলে তার অভিযোগ। পরবর্তীতে তার স্ত্রী এবং ছেলে তাকে ছাড়াতে এগিয়ে আসলে সে তাদের কেও মারধর করে গুরুতর আহত করেন বলে তিনি জানান।

এদিকে তাদের প্রতিপক্ষ আহত ফরিদ গাজী ও সাগর গাজী জানান, হাবিবুর রহমান গাজীর সাথে পূর্ব থেকেই তাদের এই জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দু, তিন দিন আগে হাবিবুর রহমান গাজী তার জমি থেকে মাটি কাটার সময় লুৎফুর রহমানের জমি থেকেও মাটি কেটে নিয়ে আসেন। আর সে কথা জিজ্ঞেস করতে গেলেই হাবিবুর রহমান গাজী সাগরকে আঘাত করেন। সে রক্তাক্ত জখম হয়ে ফরিদ গাজীর কাছে বিষয়টি জানালে, ফরিদ গাজী হাবিবুর রহমান গাজীকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে গেলে তিনি তাকেও দা দিয়ে আঘাত করেন। এ সময় উভয় পক্ষের সংঘর্ষে তারা ৬ জন গুরুতর আহত হন।

এ বিষয়ে উভয় পক্ষই মামলা নেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে তারা জানিয়েছে।

আমরা সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, পাঠকের আস্থাই আমাদের মূলধন

আপডেট সময় : ০৫:১২ পিএম

২৫ নভেম্বর ২০২০ খ্রি. ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি, বুধবার

Nk

110 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন