রাষ্ট্রপতি

কমরেড মণি সিংহ উপমহাদেশে কমিউনিস্ট আন্দোলনের পুরোধা

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, কমরেড মণি সিংহ ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, উপমহাদেশে কমিউনিস্ট আন্দোলনের পুরোধা ও বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিষ্ঠাতা।

বৃহস্পতিবার কমরেড মণি সিংহের ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দেয়া এক বাণীতে তিনি একথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, তিনি বিপ্লবী ও প্রগতিশীল গণআন্দোলনের প্রবাদতুল্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব কমরেড মণি সিংহ উপমহাদেশের ব্রিটিশবিরোধী সশস্ত্র আন্দোলন, স্বৈরাচারী পাকিস্তানি শাসকদের বিরুদ্ধে বাঙালির স্বাধিকার অর্জনের সংগ্রামসহ সারাজীবন শ্রমিক-কৃষক-মেহনতি মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার সব আন্দোলন ও সংগ্রামে প্রত্যক্ষভাবে যুক্ত ছিলেন।

তিনি আরও বলেন, কমরেড মণি সিংহ ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে আন্তর্জাতিক সমর্থন আদায়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের পাশাপাশি কমিউনিস্ট পার্টি, ন্যাপ ও ছাত্র ইউনিয়ন কর্মীদের সংগঠিত করে যৌথ গেরিলাবাহিনী গড়ে তোলার মাধ্যমে প্রত্যক্ষ যুদ্ধে অসাধারণ অবদান রেখেছিলেন। সুদীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে তিনি ত্যাগ ও সততার অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন। যুগযুগ ধরে তরুণ প্রজন্মের জন্য আদর্শ ও অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবেন এ বিপ্লবী নেতা।

আবদুল হামিদ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে কমরেড মণি সিংহের রাজনৈতিক ও ব্যক্তিগত সম্পর্ক ছিল অত্যন্ত গভীর। তিনি স্বাধীন বাংলাদেশের পুর্নগঠনেও গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে গেছেন। জাতিগঠনে কমরেড মণি সিংহের মতো সৎ ও ত্যাগী রাজনীতিকের অবদান যুগে যুগে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। আমি কমরেড মণি সিংহের ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি।

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়