chandpur report

মতলব দক্ষিণে অতিরিক্ত সচিব পরিচয়ে প্রতারণা

মতলব প্রতিনিধিঃ চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুশরাত শারমিন’কে গত ৮ ডিসেম্বর বিকাল ০৪:৩০ মিনিট ০১৩৪৫২৭৪৮০ এই নাম্বারে ভূমি মন্তণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জনাব প্রদীপ কুমার দাস পরিচয়ে ফোন দিয়ে বিভ্রান্তিতে ফেলেন এবং নায়েরগাঁও ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা ওমর ফারুক পাটোয়ারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে মর্মে জানান এবং অতিরিক্ত সচিব মহোদয়কে ফোন দিয়ে কথা বলার জন্য বলেন।

কিছুক্ষন পর বিকাল ৫:০০ ঘটিকায় একই নাম্বার থেকে ০১৩৪৫২৭৪৮০ ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তার নিকট ফোন আসে এবং জানানো হয় আপনার বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযোগ রয়েছে অভিযোগের আলোকে ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

যদি ৫ মিনিটের মধ্যে কাউকে কোনো কিছু না জানিয়ে ৩০,০০০/- (ত্রিশ হাজার) টাকা পাঠান তাহলে আপনার ডিসি-কে (জেলা প্রশাসক মহোদয়’কে) বলে দিব অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিতে নতুবা কয়েক জোড়া জুতা ক্ষয় হবে কিন্তু কোন কাজে আসবে না আরো হুংকার দিয়ে বলেন চেয়ার থাকলে আরো বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

জবাবে ভূমি উপ সহকারী কর্মকর্তা বলেন, আমি সরকারের সামান্য কর্মচারী আমার পক্ষে এত টাকা দেয়া সম্ভব নয় স্যার।

অতিরিক্ত সচিব পরিচয় দানকারী বলেন, আমি কি বাজারে মাছ মূলাইতে আসছি তাড়াতাড়ি টাকা বিকাশ করুণ। উনার পরিচয় দিলেন মাননীয় অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার দাস মহোদয়। ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইট থেকে মাননীয় অতিরিক্ত সচিব জনাব প্রদীপ কুমার দাস মহোদয়ের ব্যক্তিগত নাম্বার থেকে ফোন দিয়ে বিষয়টি জানানো হয়।

জবাবে অতিরিক্ত সচিব মহোদয় ভূমি মন্ত্রনালয়ের সম্মান বিনষ্ট ও কাজের অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য একটি কুচক্রী মহল উঠে পড়ে লেগেছেন বলে জানান।

স্যার বিষয়টি দেখবেন ও সবাইকে এধরণের প্রতারণা থেকে সচেতন হতে বলেন। কিছুক্ষণ পর ওই প্রতারক ফোন দিয়ে বলেন আপনি কি দোকানে গেছেন তাড়াতাড়ি টাকা পাঠান।

কিছুক্ষণ পর ওই ফোন নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়। মাননীয় অতিরিক্ত সচিব মহোদয় জনাব প্রদীপ কুমার দাসের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা স্বীকার করছি। এই ধরনের চক্র থেকে পরিত্রাণ প্রার্থনা করছি।

153 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন