আ’লীগ নেতা আনিস আহমেদ উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী ও কম্বল বিতরণ

সফিকুল ইসলাম রানা, মতলব উত্তর প্রতিনিধি :
মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভায় ৫ হাজার ৪শ’ পরিবারের মাঝে শীতার্ত মানুষের মাঝে খাবার ও কম্বল বিতরণ করা হয়েছে।

রোববার (৩রা জানুয়ারি) সকাল থেকে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে করোনা মহামারিতে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে খাবার ও কম্বল বিতরণ করেন- বাংলাদেশ সেনা বাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ এর বড় ভাই আওয়ামী লীগ নেতা ও সম্ভাব্য ছেংগারচর পৌরসভার মেয়র প্রার্থী, সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী আনিস আহমেদ।

খাবার ও কম্বল বিতরণকালে তিনি বলেন, নৌকা মার্কার মানুষ দুঃখী মানুষের দুঃখ কষ্ট বোঝে। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের আমলে শীতবস্ত্রের অভাবে কাউকে দুঃখ কষ্ট ভোগ করতে হবে না। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সারাদেশে শীতবস্ত্র বিতরণ করছে এবং তা অব্যাহত থাকবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়ন তথা উন্নত বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গিকার নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেহনতি মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য সোনার বাংলা গড়ার অঙ্গিকার নিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়ন তথা উন্নত বাংলাদেশ গড়তে বাংলাদেশের প্রত্যেক মানুষের পেটের ভাত, পরনের কাপড়, মাথা গোঁজার ঠাই, সকলের জন্য শিক্ষা ও চিকিৎসা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। শীতার্ত দরিদ্রদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের উপহার এসব শীতবস্ত্র।

বাংলাদেশের দুঃখী মানুষের জন্য মায়ের মমতা ঘেরা যাঁর মন, শীতার্তদের জন্য যাঁর ব্যথা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের হুকুম দিয়েছেন শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে। ৬০ বছরের বেশি বৃদ্ধ, দরিদ্র, যাদের গরম কাপড় নেই, প্রতিবন্ধী, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা মহিলাদের শীতের বস্ত্র বিতরণ করার হুকুম দিয়েছেন তিনি।

এ সময় বক্তব্য রাখেন- উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনা আক্তার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাহজাহান প্রধান, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান, যুবলীগ নেতা মিরাজ খালিদ, কাউন্সিলর বোরহান উদ্দিন প্রধান, আল-আমিন সরকার, সিঙ্গাপুর আওয়ামী লীগ নেতা আল-আমিন, ছাত্রলীগ নেতা মো. সাইফুল ইসলাম, ব্যবসায়ী মো. আরিফ, ছাত্রলীগ নেতা সুজন ভূঁইয়া, জুয়েল মীর, নুরুজ্জামান খান’সহ এলাকার গন্যমাণ্য ব্যাক্তিবর্গ।

এছাড়াও অন্যান্য স্থানে উপস্থিত ছিলেন- বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সাত্তার, চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর সাবেক ভিপি জামাল হোসেন নাহিদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ডিকে আরিফ, যুবলীগ নেতা লাল মিয়া।

৬নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর আল-আমিন সরকার, সাংবাদিক কামরুজ্জামান হারুন, আওয়ামী লীগ সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ, যুবলীগ নেতা রাকিব হাসান মুন্না। ৫নং ওয়ার্ডে ব্যাসদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সভাপতি রেহান উদ্দিন প্রামাণিক, সাধারণ সম্পাদক আবদুল হান্নান বেপারি। ৭নং ওয়ার্ড সভাপতি জীবগাঁও লিয়াকত আলী, সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক ইমতিয়াজ, যুবলীগ নেতা সোহেল রানা। ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সভাপতি বোরহান উদ্দিন প্রধান, শাহ আলম মিজি। ৯নং ওয়ার্ড সভাপতি মোশাররফ হোসেন, কাউন্সিলর আহসান হাবিব, পৌর যুবলীগ নেতা জামান সরকার, ইসমাইল হোসেন, আমিনুল হক। ২নং ওয়ার্ডের শিকিরচরে সভাপতি সানাউল্লাহ সরকার. সাবেক কাউন্সিলর শাহানুর বেপারি, রুবেল হোসেন, সৈকত হোসেন। ১নং ওয়ার্ডে পৌর ভবনে প্যানেল মেয়র আবদুল মান্নান বেপারি, আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব হোসেন, অলিউল্লাহ মাষ্টার ছাত্রলীগ নেতা জামান। ৩নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর জহিরুল হক ঢালি, আওয়ামী লীগ সভাপতি শহীদ সরকার, ছাত্রলীগ নেতা মিঠু পাটোয়ারী। ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি সাধারণ সম্পাদক সানাউল্লাহ সরকার, ছাত্রলীগ নেতা কাওছার, জামান, সৈকত।

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়