কচুয়ায় গৃহবুধূর রহস্যজনক মৃত্যুর পর স্বামীসহ শ্বশুর-শাশুড়ি আটক

জেলা প্রতিনিধি চাঁদপুর :

চাঁদপুরের কচুয়ায় প্রসন্নকাপ গ্রামে হালিমা আক্তার (২৪) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) প্রসন্নকাপ গ্রামে ওই নারীর শ্বশুরবাড়ি থেকে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

নিহত হালিমা আক্তার কচুয়া উপজেলার লতিফপুর গ্রামের আব্দুল জলিলের মেয়ে।

আব্দুল জালিলের দাবি, হালিমাকে তার স্বামী রাসেল, শ্বশুর আলী আজগর ও শাশুড়ি রেহেনা বেগম পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছেন।

জানা গেছে, প্রায় এক বছর আগে হালিমা আক্তারকে একই উপজেলার প্রসন্নকাপ গ্রামে আলী আজগরের ছেলে রাসেলের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় হালিমাকে মারধর করা হত। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার সালিশ বৈঠকও হয়েছে।

তবে অভিযুক্তরা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, হালিমা আক্তার বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ছিলেন। কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে তারা জানেন না।

এ বিষয়ে কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মহিউদ্দিন জানান, নিহতের বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। বাদীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়িকে আটক করা হয়েছে। সুরতহালে আমরা তেমন কোনো আঘাতের চিহ্ন পাইনি। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়