chandpur report 659

পদ্মা সেতু ঘুরে এলেন ব্যবসায়ী-জনপ্রতিনিধিসহ সহস্রাধিক চাঁদপুরবাসী

স্টাফ রিপোর্টার :
চাঁদপুরের কোনো সংগঠনের ব্যানারে এই প্রথম স্বপ্নের নয়, বাস্তবের পদ্মা সেতু ও শিবচর  ঘুরে এলেন   শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী,  জনপ্রতিনিধিসহ সহস্রাধিক মানুষ।
ঐতিহ্যবাহী চৌধুরীঘাট ব্যবসায়ী সমিতির উদ্যোগে  গত ৯ জানুয়ারী শনিবার চৌধুরী ঘাট থেকে ভোর ৭ টায় আল বোরাক লঋ যোগে  সহস্রাধিক লোকের  বহরের নেতৃত্বে ছিলেন চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান, জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ও সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোঃ ইউছুফ গাজী।

উক্ত বনভোজন  বিষয়ে সংগঠনের সভাপতি মোঃ  জাকির লস্কর ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ হারুনুর রশিদ হাওলাদারের সাথে কথা হলে তাঁরা বলেন,   সংগঠনের পক্ষ থেকে উদ্যোগ গ্রহণ করে  এটি সফল করা নিয়া প্রথমে দুঃচিন্তায় ছিলাম। কিন্তু আল্লাহর রহমতে এতো সুন্দর আয়োজনের মধ্য দিয়ে সফলতায় পৌঁছেতে পারবো,  তা ভাবতে কষ্ট হয়।

কারণ সংগঠনের  সদস্য,  পরিবারের সদস্য,  শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এবং জনপ্রতিনিধি নিয়ে  আয়োজনে যে সফলতা এসেছে   এজন্য মহান আল্লাহ দরবারে শোকরিয়া, এরপর আমাদের প্রধান উপদেষ্টা  আলহাজ্ব মোঃ ইউছুফ গাজী সকল উপদেষ্টা সংগঠনের সকল সদস্য, সুধীজন সহ সকলের   প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।
সকলের ঐকান্তিক আন্তরিকতায় এবং  স্বতঃস্ফূর্ত প্রচেষ্টার মধ্য দিয়ে সফল হওয়া গৌরব অর্জন সম্ভব হয়েছে। 
সকলে মিলেমিশে দিনব্যাপী   আনন্দ  উৎসবের মেতে উঠেছি এতে  সকলের সাথে সকলের  বন্ধনের দৃড়তা আরো সুদৃঢ় হয়েছে।  আয়োজনে ছিলো বিভিন্ন ধরনের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। যাতে  পরিবারের সদস্য, সংগঠনের সদস্য ও অতিথিদের  প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ  এবং সকলের জন্য পুরস্কারের ব্যবস্থা।
সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা, জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ ইউছুফ গাজী বলেন, চাঁদপুরে বিভিন্ন পেশার  সংগঠন রয়েছে, কিন্তু কেউ আজো এতো বড় ঝুঁকি নিয়ে তা বাস্তবায়ন করতে পারছে তা আমার জানা নাই।  আল্লাহর রহমতে আমরা সকলের সহযোগিতায়  তা সফল হয়েছি, এজন্য আমি যাদের সহযোগিতা পেয়েছি  তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। দিনব্যাপী আনন্দ উৎসব শেষে অত্যান্ত শান্তি পূর্ণ ভাবে পুনরায় ফিরে আসায়  আবারো সৃষ্টি কর্তার নিকট শোকরিয়া আদায় করছি।
পদ্মা সেতুর পাশ্বের শিবচরে আমরা অবস্থান নিয়ে  প্রীতি ফুটবল, ক্রিকেট, ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা,   সন্তানদের জন্য বিভিন্ন খেলাধুলা, মহিলাদের বালিশ ও চেয়ার দখল প্রতিযোগিতা শেষে সকলের মাঝে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানটি সবচেয়ে বেশি আনন্দের । সর্বোপরি সকলের জন্য ছিলো আর্কষনীয় রেফেল ড্র, যে পুরস্কার প্রাপ্তিতে  ছিলো সকলের আনন্দ।
শেয়ার করুন