‘সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে জনশুমারির তালিকাভুক্ত করতে হবে’

হাইমচরে জনশুমারি জরিপ অবহিতকরণ মতবিনিময় সভায় যুগ্ম সচিব ড. শাহাদাত হোসেন

সাহেদ হোসেন দিপু, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট (হাইমচর) :
চাঁদপুর জেলার হাইমচর উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিশংখ্যান অধিদপ্তরের উদ্যোগে জনশুমারি জরিপ কার্য বাস্তবায়নে মাঠ পর্যায়ে স্থায়ীভাবে শুমারি-জরিপ কমিটির সাথে অবহিতকরণ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৫ জানুয়ারি বেলা ১১ টায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার চাই থোয়াই হলা চৌধুররির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পরিসংখ্যান সেন্সান উইং পরিচালক যুগ্ম সচিব ড. শাহাদাত হোসেন।

এসময় তিনি বলেন, এক সময়ের অনুন্নত-অবহেলিত হাইমচর এখন আর পিছিয়ে পড়ে নেই। হাইমচর উপজেলায় অবকাঠামোসহ সার্বিক উন্নত হলেও সরকারি সুবিধা থেকে অনেকেই বঞ্চিত। পূর্বের জনশুমারি তথ্য অনুযায়ী অসহায় মানুষজনের সংখ্যার চাইতে কম বরাদ্ধ আসায় সকলের মাঝে ত্রান অনুদান বন্টন করা সম্ভ হয় না। তাই এখন যে নতুন করে জনশুমারি ও গৃহ গণনা হবে তাতে যেন হাইমচরের একটি লোকও বাদ না পড়ে। সকল শ্রেণি ও পেশার মানুষকে জনশুমারির তালিকাভুক্ত করতে হবে। তাহলেই হাইমচরের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষজনের মাঝে সরকারি সেবা প্রদান করা যাবে। কেউ সরকারি সেবা থেকে বঞ্চিত হবে না। সরকারি সেবা পেতে হলে জনশুমারির তালিকাভুক্ত হতে হবে।

মতবিনিময় সভায় উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা রেহেনা আক্তারের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন হাইমচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মেডিকেল অফিসার মামুন রায়হান, পেসক্লাব সভাপতি মো. খুরশিদ আলম, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সন্তোষ কুমার মজুমদার, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান এমএ বাশার, ইউপি চেয়ার সালাহ উদ্দিন সরদার, আব্দুল জলিল মাষ্টার, আহমেদ আলী মাষ্টার, হাবিবুর রহমান গাজি ও মনির আহমেদ দুলাল।

সভায় উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম সচিব এইচ এম ফিরোজ, উপজেলা সহকারি কমিশনার ভ’মি রিগেন চাকমা, হাইমচর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. মাহবুবুর রহমান মোল্লাহ, উপজেলা প্রকল্পবাস্তবায়ন কর্মকর্তা আমিনুর রশিদ, মৎস্য অফিসার মিজানুর রহমান, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প পরিচালক জিল্লুর রহমান জুয়েল, বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম কোতয়ালসহ উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্ত কর্মচারিবৃন্দ।

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়