chandpur report 1488

হাইমচর নীলকমল ডিয়ারা বাজার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা আহত ৫, আটক ১

সাহেদ হোসেন দিপু, হাইমচর প্রতিনিধি :
চাঁদপুর জেলার হাইমচর উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের আধিপত্যকে কেন্দ্র করে ডিয়ারা বাজারে হামলা দোকানে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে।

বাজার ব্যবসায়ী ও পথচারিসহ আহত হয়েছেন ৫জন। ঘটনার সংবাদ পেয়ে ঈশানবালা বায়ারচর পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জের নেতৃত্বে পুলিশ টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে একজনকে আটক করে হাইমচর থানায় নিয়ে আসে।

রোববার সকাল ১০ টায় নীলকমল ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের চৌকদার কান্দিতে স্থানীয় প্রবাবশালী সানু পেদা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রতন হাজীর নেতৃত্বে ৭০ থেকে ৮০ জন লোক ডিয়ারবাজারে আকস্মিক হামলা চালায়। এসময় একটি দোকান আগুনদিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়। ব্যবসায়ীসহ স্থানীয় ৫জন আহত হন। আহতরা হাইমচর স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। এঘটনাকে কেন্দ্র করে সাঈদ পেদার ছেলে কবির হোসেন(২৩)কে আটক করা হয়।

ডিয়ারা বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক সবুজ বেপারী চাঁদপুর রিপোর্ট ডট কমকে জানান, সানু পেদা ও রতন হাজীর নেতৃত্বে কাশেম পেদা, মোশারফ পেদা, দেলোয়ার পেদা, জহিরুল ইসলাম পেদা, বাদশা পেদা, রাসেল পেদা জুয়েল পেদা সহ প্রায় ৭০ থকে ৮০জন লোক প্রথমে মোকামে যাওয়ার সময় ট্রলারে হামলা চালিয়ে টাকা পয়সা, মোবাইল লুটপাট করে। পরে আবার পুনরায় হঠাৎ করে বাজারে এসে দোকানপাট ভাংছুর শুরু করে। এসময় তারা একটি দোকানে আগুন লাগিয়ে দেয়। ব্যবসায়ী ও পথচারিদের উপর গণহারে হামলা চালিয়ে লোকজনকে আহত করে। দোকানপাট লুটপাট করার সময় স্থানীয় লোকজন একত্রিত হয়ে তাদেরকে ধাওয়া করলে তারা পালিয়ে যায়।

বাজার কমিটির সভাপতি হুমায়ুন চৌকদার চাঁদপুর রিপোর্ট ডট কমকে জানান, সানুপেদা ও রতন হাজী পূর্বপরিকল্পিতভাবে বাজার দখল করার জন্য দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বাজারের দোকান ভাংছুর ও অগ্নিসংযোগ করে লুটাপাট করে নিয়ে গেছে। আমি বাদী হয়ে হাইমচর থানায় মামলা দায়ের করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি।

স্থানীয় ইউপি মেম্বার রাসেল হওলাদার চাঁদপুর রিপোর্ট ডট কমকে জানান, আমি বাজারে গিয়ে দেখি প্রায় ৭০ থেকে ৮০জন লোক দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে দোকান পাট ভাংছুর করছে। আমি অনেক চেষ্টা করেও তাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারিনি। তারা একটি দোকানে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। লোকজনের উপর হামলা চালিয়ে অনেককেই আহত করেছে।

বায়ারচর পুলিশ ফাঁড়ির আইসি গপিনাথ চাঁদপুর রিপোর্ট ডট কমকে জানান, আমি সংবাদ পেয়েই ঘটনাস্থলে গিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষের নিয়ন্ত্রণ করি। ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আটক করেছি। বর্তমানে ঐ এলাকা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

হাইমচর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. মাহবুবুর রহমান মোল্লা চাঁদপুর রিপোর্ট ডট কমকে জানান, ডিয়ার বাজারে মারামারির সংবাদ পেয়ে ঈশান বালা বাঁয়ারচর ফাড়ির ইনচার্জকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে ঘটনার নিয়ন্ত্রণ করি। একজনকে আটক করা হয়েছে। যে বা যারাই এ ঘটনার সাথে জড়িত তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে। কোন অপরাধীকেই আমরা ছাড় দিব না। যারাই হাইমচরে বিশৃংখলা সৃষ্টি করবে আমি তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। এ ঘটনায় নিয়মিত মামলার প্রস্তুতি চলছে।

22 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন