চট্টগ্রামে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ, লাশ ঝুলছিল গাছে

নিউজ ডেস্ক :

ধর্ষণের পর হত্যা করে তরুণীর লাশ ওড়না পেঁচিয়ে গাছে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের লোহাগড়া উপজেলার পুটিবিলা ইউনিয়নের রাবার ড্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শারমিন আক্তার লোহাগাড়া উপজেলার একটি মাদ্রাসায় সপ্তম শ্রেণিতে পড়ত।

এদিকে শারমিন আক্তারের এমন মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না স্বজনরা। তারা বলছেন, ধর্ষণের পর তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের লালচে দাগ রয়েছে। আর পুলিশ বলছে ময়নাতদন্তের পরই উদঘাটিত হবে হত্যার রহস্য।

জানা যায়, বাড়ির পাশে খামার বাড়িতে দাদির সঙ্গে থাকতেন নিহত শারমিন। গতকাল শনিবার বিকেল ৫টার দিকে দাদিবাড়ির কাজে বের হয়। এর ঘণ্টাখানেক পর তার লাশ গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় গাছে ঝুলে থাকতে দেখে প্রতিবেশীরা। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন মাহমুদ বলেন, এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলার প্রক্রিয়া চলছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর বিস্তারিত জানা যাবে।

শেয়ার করুন

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়