chandpur report 1756

বাংলাদেশ আ’লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় যুবলীগ

শেরপুর প্রতিনিধি : বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এনামুল হক খানের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক উপ সম্পাদক আলতাফ হোসেন, সহ সম্পাদক মির্জা মোঃ নাসিউল আলম শুভ্র, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এডভোকেট জাকিরুল করিম ইমরান, শেখ রাসেল, ব্যারিস্টার সাইফুল্লাহ রহমান, নুসরাত জাহান সিমুর সমন্বয়ে গঠিত কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগের বিশেষ টিম ২৪ ফেব্রুয়ারি, বুধবার সকাল থেকে জামালপুর অবস্থান করছেন।

এসময় তাদের সাথে ছিলেন, আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য ফজলুল হক ও ওয়ান বাংলাদেশ শেরপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক যুবলীগ কর্মী শাহ মুহাম্মদ ইমতিয়াজ চৌধুরী শৈবাল।

২৪ ফেব্রুয়ারি, বুধবার সকাল থেকেই তারা জামালপুর পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, মো: ছানোয়ার হোসেন ছানুর পক্ষে প্রচারণা করেছেন।

সকাল ১১ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোঃ ছানোয়ার হোসেন ছানু, জামালপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি রাজন সাহা রাজু, সাধারণ সম্পাদক ফারহান আহমেদসহ শহর ও উপজেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে কেন্দ্রীয় ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক উপ সম্পাদক আলতাফ হোসেনের নেতৃত্বে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত জামালপুর পৌরসভার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ও মহল্লায় মিছিল সহকারে প্রচারণা চালায় যুবলীগ। পরে বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগ কর্তৃক আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে।

২৫ তারিখ, বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ৩ টা পর্যন্ত যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, এনামুল হক খানের নেতৃত্বে মেয়র প্রার্থী সানোয়ার হোসেন ছানুরকে সাথে নিয়ে দুপুর ১২ টা থেকে ৩ টা পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রচারণা চালায়।

বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে নাতিদীর্ঘ কর্মী সমাবেশ শেষে সন্ধ্যা ৭ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত শহরের ১১ নং ওয়ার্ডের বাঘের হাটা ও পলাশগড় এলাকায় ২ টি পথসভা করেন তারা।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এনামুল হক খান বলেন,’ অধ্যাপক ফজলে শামস পরশ ও আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিলের এর নেতৃত্বে যুবলীগ এখন দেশের সেরা মানবিক সংগঠন। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ আজ উন্নত দেশ হিসেবে এগিয়ে যাচ্ছে। এই জামালপুরও আজ একজন দক্ষ নেতা, বাংলাদেশের যুবকণ্ঠ মির্জা আজম এমপির ছোঁয়ায় দেশের অগ্রগামী জেলায় পরিনত হয়েছে। আমরা আজ উন্নয়নের মহাসড়কে রয়েছি। এই ধারা অব্যাহত রাখত হলে পৌর নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরকে জয়ী করা অপরিহার্য। সেই লক্ষ্যে আগামী ২৮ তারিখে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে প্রত্যেকে নৌকায় একটি করে ভোট প্রদান করবেন। কারণ, এদেশের স্বাধীনতার মার্কা নৌকা, গরীব মেহনতী মজদুর মানুষের মার্কা নৌকা, উন্নয়নের মার্কা নৌকা, তারুণ্যের মার্কা নৌকা। যেহেতু এবার ডিজিটাল পদ্ধতি তথা ইভিএম এ ভোট গ্রহণ করা হবে, সুতরাং, সকল ভোটারদের প্রতি অনুরোধে রইলো সকাল সকাল স্মার্ট কার্ড সাথে নিয়ে কেন্দ্রে গিয়ে নৌকায় একটি করে ভোট প্রদান করবেন’। জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সরোয়ার হোসেন শান্তের সঞ্চালনায় ও বাংলাদেশ আওয়ামী কৃষক লীগের ঢাকা মহানগর শাখার সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য প্রদান করেন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক উপ সম্পাদক আলতাফ হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য শেখ রাসেল, ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি ফজলুল হক সহ প্রমুখ৷

২৬ তারিখ, কেন্দ্রীয় যুবলীগের এই টিম জামালপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি রাজন সাহা রাজু, মাদারগঞ্জ কলেজের সাবেক ভিপি কেন্দ্রীয় যুবনেতা লিটন ও মাদারগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদককে নিয়ে মাদারগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মির্জা গোলাম কিবরিয়া কবিরের পক্ষে দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শহরের গুরুত্ব এলাকায় গণসংযোগ ও পথসভা ও কর্মী সমাবেশ করে। এসময় কেন্দ্রীয় যুবলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক উপ সম্পাদক আলতাফ হোসেন বলেন, ‘আমরা যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে বঙ্গবন্ধু আদর্শ ধারণ করে রাজনীতির করি, তারা সবাই জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে লক্ষ্যে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাবো। যেহেতু এবার ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ করা হবে, সুতরাং নৌকার কর্মী হিসেবে আমাদের দায়িত্ব প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি নিশ্চিত করা। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিটি স্থরের সদস্য, ফজলে শামস পরশ ভাই ও আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল ভাইয়ের নির্দেশনা মোতাবেক ভোটার উপস্থিতি নিশ্চিত করতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।’

রাতে জামালপুর ফিরে তারা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে যুবলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীদের সাথে নির্বাচন পরিচালনার জন্য দিকনির্দেশনা প্রদান করেন। রাতে তারা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপির সাথে সাক্ষাৎ করেন। ২৬ তারিখ প্রচারণার শেষ দিন হওয়ার শনিবার কোন প্রচারণার আয়োজন ছিলো না। তবে তারা জামালপুর অবস্থান করে জেলা, উপজেলা ও শহর যুবলীগসহ বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীদের সাথে নিরবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ রাখছেন এবং প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করছেন বলে জানা যায়।

এ সম্পর্ক কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ সম্পাদক,মির্জা মোঃ নাসিউল আলম আমাদের জানান, ‘যুবলীগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ফজলে শামস পরশ ভাই ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল ভাইয়ে নির্দেশনায় সাংগঠনিক কার্যক্রম তরান্বিত করতে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক মনোনীত নৌকার প্রার্থীকে আসন্ন ২৮ তারিখের পৌরসভা নির্বাচনে জয়ী করতেই আমরা জামালপুর এসেছি। আমাদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যান্য টিমগুলো বিভিন্ন নির্বাচনী পৌর এলাকায় রয়েছে৷ এবারের বিগত ৪ টি ধাপের পৌর নির্বাচনেগুলোতেও কেন্দ্রীয় যুবলীগ কাজ করেছে। আমরা নৌকা তথা জননেত্রী শেখ হাসিনার বিজয় নিশ্চিত করেতেই নিরলস কাজ করে যাচ্ছি।’

উল্লেখ্য আগামী ২৮ তারিখ জামালপুরে ৩ টি পৌরসভায় নির্বাচন।

শেয়ার করুন