mesta

মুখের মেছতা ও কালো-বাদামী দাগ দূর করার উপায়

অনেকেরই মুখে কালো বা বাদামী দাগ পড়ে। সাধারণ চিকিৎসায় এ কালো বা বাদামী দাগ রিমুভ হয় না। এ সমস্যায় অনেকেই ভোগে কোনো কূল-কিনারা পান না। তাদের জন্যে আমাদের এই প্রতিবেদন, কথা দিচ্ছি : মুখের কালো দাগ, মেছতার দাগ শতভাগ  রিমুভ হবে ইনশাল্লাহ।

ত্বকের যে সম্যসাগুলো সবচেয়ে মারাত্মক এবং বিরক্তিকর তার মধ্যে মেছতা অন্যতম। মুখে কালো বা বাদামী রঙের যে ছোপ ছোপ দাগ পড়ে তাকে মেছতা বলা হয়।

প্রায় সব বয়সী নারীদের ত্বকে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। মুখের অনাকাক্সিক্ষত দাগ ও এই মেছতা দূর করার জন্য লেজার ট্রিটমেন্টও করানো হয়।

অনেকের ত্বকে এইগুলো কাজ করে থাকে, আবার অনেকের ত্বকে এইগুলো কাজ না করে ত্বকের ক্ষতি হয়ে থাকে।  সম্পূর্ণ পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ামুক্ত Meladerm Liquid ব্যবহারে মুখ ও ত্বকের মেছতা ও কালো দাগ দূর করা সম্ভব মাত্র দু’ সপ্তাহে।

এতে
১. মুখের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে।
২. কালো দাগ দূর করে।
৩. ত্বকের সমস্যা দূর করে।
৪. শুকনো ভাব চলে যায়।
৫. মেছতার দাগ দূর হয়ে ত্বক লাবণ্যময় ও সুন্দর হয়ে ওঠে।

gif maker

মেছতার কারণ
১। মেছতার প্রধান এবং মূল কারণ হলো সূর্যের আলো। কোনো প্রতিরক্ষা ছাড়াই অতিরিক্ত সূর্যের আলোতে গেলে এটি হতে পারে।

২। জন্ম নিয়ন্ত্রের পিল খেলে

৩। থাইরয়েড সমস্যা

৪। হরমোনের তারতম্য

৫। বংশগত কারণে

৬। ত্বক নিয়মিত ভালভাবে পরিষ্কার না করলে

৭। অতিরিক্ত চিন্তা, কাজের চাপ, কম ঘুম ইত্যাদি।

এই সকল কারণে সাধারণত মেছতা হয়ে থাকে। এছাড়া আরোও অনেকে কারণে মেছতা হতে পারে।

Meladerm Liquidহার্বস মাশরুম সোপ  ব্যবহার করে অনায়াসেই এই দাগ দূর করা সম্ভব।

ব্যবহার বিধি :
হাতের সাহায্যে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে কটন বা তুলো দিয়ে ঔষধটি কালো দাগ বা মেছতার দাগের ওপর মালিশ করতে হবে। ১৫-২০ মিনিট পর যখন তা শুকিয়ে যাবে তখন ধুয়ে ফেলতে হবে। প্রতিদিন সকাল ও বিকেলে এটি প্রয়োগ করতে হবে।

Meladerm Liquid প্রায়ই ব্যবহারের ৩ মাসের মধ্যে প্রাথমিক ফলাফল প্রদান করে, তবে, পুরো ফলাফল সাধারণত ৫-৬ মাস লেগে এবং ব্যক্তির নির্দিষ্ট ত্বক দেহতত্ব এবং অবস্থার উপর ভিত্তি করে পরিবর্তিত হতে।

Meladerm Liquidহার্বস মাশরুম সোপ পাওয়া যাবে অর্ডার করলে।

বাংলাদেশের যে কোনো জেলায় কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমেও দু’ থেকে তিন দিনের মধ্যেই ঔষধ পেতে পারেন।

 

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

(শতভাগ বিশ্বস্ত ও প্রতারণামুক্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান)

ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার, হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।

মুঠোফোন : ০১৭৪২০৫৭৮৫৪।

শ্বেতীরোগ, যৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

শেয়ার করুন