chandpur report 1806

চাঁদপুরে ৭ মার্চ উপলক্ষে জেলা আ’লীগের আলোচনাসভা

মোঃ সাদ্দাম হোসেন, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট :

চাঁদপুরে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবসে জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান ও আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়।

৭ মার্চ রোববার সকাল সাড়ে ৭টায় জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় সম্মুখে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও সকাল ৮টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করা হয়। এর পর পরই চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ৭ মার্চ আমাদের বিশাল একটি ঐতিহ্য। বাঙালি জাতি ছিলো পরাধীন। এদিনে জাতিকে জাগ্রত করেছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আর এ জাতিকে জাগ্রত করতে বঙ্গবন্ধু অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ১৮ মিনিটের ভাষণ জাতিসংঘের ঐতিহ্য হিসেবে ¯’ান পেয়েছে। সেই ভাষণের ডাকে বাংলাদেশের জনগণ যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পরেছিলো এবং বাংলার স্বাধীনতা লাভ করেছিলো। জাতির পিতার ভাষনের কারনে আমরা একটি স্বাধীন মানচিত্র ফিরে পেয়েছি।

তিনি বলেন, আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে থাকতে হয়। এ দেশকে উন্নয়নের চূড়ায় নিতে ঐক্যবদ্ধের কোনো বিকল্প নেই। চাঁদপুরে আওয়ামী লীগ থাকবে ঐক্যবদ্ধ এবং ঐক্যবদ্ধ থেকে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল।

তিনি বলেন, আজকে বাঙালি জাতির অস্তিত্বের দিন। ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষনের মাধ্যমে তিনি বাংলার জনগণকে একত্রিত করেছিলেন। এনে দিয়েছেন বাংলার স্বাধীনতা। জাতির পিতা সবসময়ই সাধারণ জনগণের কথা চিন্তা করেছিলেন। সাধারণ জনগণ যেন ভালো থাকে সে চিন্তাই সবসময় করেছেন।

জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. জহিরুল ইসলামের সঞ্চালনায় আলোচনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আব্দুর রব ভূঁইয়া ও আব্দুর রশিদ সর্দার, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. রুহুল আমিন সরকার, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক নুরুল ইসলাম মিয়াজী, দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম মিয়া, সাবেক শ্রম বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য অ্যাড. জসিম উদ্দিন পাটওয়ারী, পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাব্বির হোসেন মন্টু দেওয়ান, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মঞ্জুর আহমেদ, যুব লীগের আহবায়ক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান কালু ভূঁইয়া, যুগ্ম আহবায়ক সালাউদ্দিন মোঃ বাবর, পৌর আওয়ামী লীগের নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন, শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহাবুবুর রহমান, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক পারভেজ করিম বাবু, ছাত্রনেতা ওমর ফারুক, কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক, কৃষক লীগের যুগ্ম আহবায়ক হারুনুর রশিদ, মহিলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে রানু বেগম, মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি আব্দুল মালেক দেওয়ান, ছাত্রনেতা মাসুদুর রহমান পলান প্রমুখ।

শেয়ার করুন