faridgonj hospital

ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটির অবকাঠামো থাকলেও ৫০ শয্যায় উন্নীত হয়নি

আনিছুর রহমান সুজন :
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটির সম্প্রতি ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে নতুন ভবনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ৫০ শয্যায় উন্নীত করণের দীর্ঘদিনের দাবী পুরুণের সময় এখনই। জেলার সর্ববৃহৎ উপজেলা হিসাবে এ উপজেলায় প্রায় ৬ লাখ মানুষ রয়েছে। বৃহৎ এ জনগোষ্টির সেবা দিয়ে চলছে ৩৮টি কমিউনিটি ক্লিনিক ,৪টি উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও ৩১ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ।

বরাবর বলা হতো অবকাঠামোর অভাবে ৫০ শয্যায় উন্নীত করা যাচ্ছেনা। অবকাঠামোর সমস্যার সংবাদ দৈনিক ইত্তেফাকে ছাপানোর পর ৯ কোটি ৭৮ লাখ টাকা বরাদ্দর কথা নিশ্চিত করেছিলেন তৎকালীন টিএইচও ডা. জাহাঙ্গীর আলম শিপন। সম্প্রতি মঙ্গলবার সেই বরাদ্দের নির্মিত নতুন ভবনের শুভ উদ্ধোধন করেছেন, সংসদ সদস্য প্রখ্যাত সাংবাদিক মুহাম্মদ শফিকুর রহমান।

পূর্ব থেকে অবকাঠামো নির্মানের পর ৫ বছর কালক্ষেপন করে অত:পর জনবলের জন্য প্রথম আবেদন ২০১৫সালে করা হয়। এরপর ২০১৬ ও ২০১৭ এবং ২০১৮ সালে পরপর চারবার আবেদন পাঠানোর পরেও কোন কাজ হয়নি। উপজেলা বাসীর জোর দাবী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৫০ শয্যায় উন্নীত করার।

বর্তমানে প্রতিদিন প্রায় সাড়ে ৪শ‘ রোগী বর্হিবিভাগে চিকিৎসা নিতে আসে। চিকিৎসা সেবাকে সার্বক্ষণিক করণে ও ইনডোর-আউট ডোরে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সেবা পেতে ৫০ শয্যায় করা দরকার মনে করছে সেবা নিতে আসা রোগীরা।

স্বস্থ্য কমপ্লেক্সের আর এম ও ডাক্তার কামরুল হাসান জানান, আমারা আমাদের সাধ্যমত সেবা দিয়ে চলছি । প্রতিদিন হাসপাতালে প্রায় ৫শ‘ রোগী সেবা নিতে আসে। তাছাড়া ৭টি বেসিক ঔষধ হাসপাতাল থেকে সরবরাহ করা হয়ে থাকে। বিভিন্ন পরীক্ষা-নীরিক্ষাতো আছেই। সার্বক্ষনিক সেবা, জনবল নিরসনসহ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সেবা পেতে ৫০ শয্যায় উন্নীত করণের বিকল্প নেই। ৮ থেকে ১০ জন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার পাওয়া যাবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ চৌধুরী জানান, সেবা প্রদানে আমি সর্বাত্বক প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। সঠিক সেবা প্রদানে কোন বিঘœতার সৃষ্টি যেন না হয়। ৩১ শয্যা হতে ৫০ শয্যায় উন্নীত করণের জন্য একাধিকবার আবেদন পাঠানো হয়েছে। অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছি। অনুমোদন পেলে জনবল বৃদ্ধি ও বিশেষজ্ঞ ডাক্তার সমস্যা থাকবেনা। তাছাড়া সম্প্রতি ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত নতুন ভবনের ফলে ৫০ শয্যায় উন্নীতের জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি।

শেয়ার করুন