chandpur dead

হাজীগঞ্জে শাশুড়ি-শ্যালিকাকে অজ্ঞান করে লুট, থানায় স্ত্রীর অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে শাশুড়ি-শ্যালিকা ও স্ত্রীকে চেতননাশক দিয়ে অজ্ঞান করে নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, মোবাইলসহ পাঁচ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে জামাই খাজা আহমেদের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) স্ত্রী নাজমা আক্তার বাদী হয়ে হাজীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এর আগে বুধবার (৩ মার্চ) গভীর রাতে হাজীগঞ্জ উপজেলার গন্ধব্যপুর ফকির মোহাম্মদ বেপারি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত খাজা আহমেদ পাশের সুদিয়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে

শ্যালক মো. শামীম জানান, বুধবার রাতে আমার মা ও ছোট বোন শামীমা আক্তার ও বড় বোন নাজমা আক্তার ঘরে ঘুমাচ্ছিল। রাতের এক সময় খাজা আহমেদ ঘরে প্রবেশ করে চেতনানাশক দ্রব্য নাকে-মুখে দিয়ে অজ্ঞান করে নগদ দেড় লাখ টাকা, একটি স্বর্ণের চেইন, কানের ধুল মোবাইলসহ প্রায় পাঁচ লাখ টাকার মালামাল লুট করে। কিছুক্ষণ পর আমার মা টের পেলে সে মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়।

খাজা আহমেদের স্ত্রী ও বাদী নাজমা আক্তার বলেন, ‘অভিযুক্ত খাজা এর আগেও কয়েকবার গরু চুরির দায়ে সাজা খেটেছেন।’

হাজীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো. ইব্রাহিম খলিল বলেন, ‘এ বিষয়ে একটি অভিযোগ করা হয়েছে। তদন্তের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

শেয়ার করুন