chandpur report 1904

জেল মিশ্রিত চিংড়ি-জাটকা সংরক্ষণ ও বাজারজাত করণের দায়ে শাহরাস্তি ও হাজীগঞ্জের দু’জন আটক

মোঃ সাদ্দাম হোসেন ॥ র‌্যাব-১১, সিপিসি-২, কুমিল্লার একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১ এপ্রিল বিকেলে কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিন থানাধীন পদুয়ার মাছ বাজারে অভিযান পরিচালনা করে। বাজারে নিয়মের ব্যাত্যয় ঘটিয়ে অননুমোদিত ও অবৈধভাবে নিষিদ্ধ ঘোষিত ক্ষতিকর জেল মিশ্রিত চিংড়ি, জাটকা মাছ সংরক্ষণ ও বাজারজাত করার দায়ে অহিদুর রহমান (৫০) (পিতা- সিদ্দিকুর রহমান, সাং- উজান মুড়ী, থানা- চৌদ্দগ্রাম, জেলা- কুমিল্লা), শফিক (৪৫) (পিতা- বাদশা মিয়া, সাং- আদর্শ ইছাপুরা, থানা- শাহরাস্তি, জেলা- চাঁদপুর) ও জহির (২৫) (পিতা- মোঃ শফিক, সাং-হাজীগঞ্জ, থানা- হাজীগঞ্জ, জেলা- চাঁদপুর)-কে গ্রেফতার করা হয়।

অভিযানে অহিদুর রহমান (৫০) ও শফিক (৪৫)- দ্বয়ের নিকট থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত ক্ষতিকর জেল মিশ্রিত ১২০ কেজি চিংড়ি জব্দ করে তা পরে ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হয়।

গ্রেফতারকৃত জহির (২৫)-এর নিকট থেকে ৫০ কেজি জাটকা জব্দ করা হয় এবং পরে এতিমখানায় বিতরন করা হয়। উক্ত অভিযানে জেলা প্রশাসন, কুমিল্লা এবং মৎস্য অধিদপ্তর, কুমিল্লা সর্বাত্মক সহযোগিতা করে।

এ সময়ে কুমিল্লা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ মাহামুদুল হাসান রাসেল ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন এবং উপরোক্ত অপরাধ আমলে নিয়ে বাংলাদেশ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন ২০০৯-এর ৪২ ধারা মোতাবেক অহিদুর রহমান (৫০)কে ৫০ হাজার টাকা এবং শফিক (৪৫)-কে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। বাংলাদেশ মৎস্য সংরক্ষণ আইন ১৯৫০-এর ৪ ও ৫ মোতাবেক জহির (২৫)-কে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

উল্লেখ্য, দণ্ডপ্রাপ্তরা বাজারে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধভাবে নিষিদ্ধ ঘোষিত ক্ষতিকর জেল মিশ্রত চিংড়ি এবং জাটকা মাছ সংরক্ষণ ও বাজারজাত করে আসছিলো। নিষিদ্ধ ঘোষিত ক্ষতিকর জেল মিশ্রিত চিংড়ি এবং জাটকা মাছ সংরক্ষণ ও বাজারজাতকারীদের বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

শেয়ার করুন