porkia jinaidoho

প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে, ১১ লাখ টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক

প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের পর তিন বছরে এক নারী উন্নয়নকর্মীর কাছ থেকে ১১ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে তার স্বামী বুরহান উদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান।

তিনি জানান, ৫ এপ্রিল ওই নারী বাদী হয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। মঙ্গলবার ভোরে আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। বিকেলে তাকে আদালতে পাঠানো হয়। গ্রেফতার বুরহান উদ্দিন উপজেলার কালীচরণপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০২০ সালের ১৭ মার্চ প্রেমের ফাঁদে ফেলে ওই নারীকে বিয়ে করেন বুরহান। বিয়ের পর কিছুদিন তাদের সম্পর্ক ভাল ছিল। শহরের হামদহ ঘোষপাড়ায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করেন তারা। ব্যবসার নানা অজুহাতে তার কাছে থাকা প্রায় ১১ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন বুরহান।

স্ত্রীর টাকা নিয়ে শহরের মুন্সী মার্কেটে এআর বস্ত্র বিতান নামের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করেন। টাকা নেয়ার পর আরও টাকা দাবি করেন বুরহান। টাকা দিতে না পারলে স্ত্রীকে নানাভাবে নির্যাতন শুরু করেন। টাকা না দিতে পারায় গত ১৬ মার্চ তাকে বেধড়ক মারধর করেন। ভাড়া বাসায় এনে প্রতিনিয়ত মারধর ও নির্যাতন করতেন এবং তালাক দেয়ার জন্য চাপ দিতেন। উপায় না পেয়ে ওই নারী বাদী হয়ে বুরহান উদ্দিনসহ তিনজনকে আসামী করে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

শেয়ার করুন