chandpur report 1903

ফরিদগঞ্জে বাবার বিরুদ্ধে মেয়ের বসতঘর পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি :
ফরিদগঞ্জে ভালোবেসে বিয়ে করায় মেয়ের স্বামীর বসত ঘর পুড়িয়েছে দিয়েছে বলে অভিযোগ তারই মেয়ে তাসলিমা আক্তার। এব্যাপারে তাসলিমা তার বাবা মেহেদী হাছান বিরুদ্ধে আগুন দিয়ে ঘর পোড়ানো অভিযোগ দায়ের করেন।

বৃহষ্পতিবার (১ এপ্রিল) রাতে উপজেলার গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের চরমথুরা গ্রামের বড় বাড়িতে আগুন দিয়ে বসতঘর পোড়ানোর যাওয়ার ঘটনাটি ঘটে। এতে সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা ক্ষতিসাধিত হয়েছে বলে ভুক্তভোগিরা যানান।
জানা যায়, ২০১৫ সালে এই ইউনিয়নের মেহেদী হাছান মঞ্জু মেয়ে তাসলিমা আক্তার মিমি পাশের গাজী বাড়ির মৃত খোরশেদ আলম গাজীর ছেলে আঃ ছাত্তারকে ভালোবেসে পালিয়ে বিয়ে করে। কিন্তু তাসলিমার বাবা এই বিয়ে মেনে নিতে পারিনি। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মঞ্জু মেয়ের স্বামী আঃ সাত্তারের বিরুদ্ধে নারী শিশু নিজ্জাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলা এখন চলমান আছে বলে জানাযায়।

তাসলিমা আক্তার বলেন, আমরা গত ৬ বছর পূর্বে ভালোবেসে বিয়ে করেছি তখন থেকে আমার বাবা আমাদের তিনি মেনে নিতে পারেনি। উল্টো আমার স্বামীর বিরুদ্ধে অপহরন মামলা দায়ের করেছেন। সেই মামলা এখন চলমান রয়েছে। আমরা বাড়িতে আসলে আমাদের মারধর ও নির্যাতন করতো। তাই আমরা বাড়িতে থাকিনা। গত বৃহস্পাতিবার বিকেলে আমার বড় জ্যা রোজিনা বেগমের বাড়িতে আসলে তাকে মারধর করে এবং তাকে মেরে পেলার হুমকি দিয়ে থাকে। তিনি বলেছেন আমরা ঘর থাকার কারনে বাড়িতে আসি তিনি সেই ঘর পুড়িয়ে দিবে। যাতে আমরা বাড়িতে আসতে না পারি। তাই তিনি গতকাল আমার স্বামীর ঘর পুড়িয়ে দিয়েছে।

এ বিষয়ে তাসলিমার বাবা মেহেদী হাসানের জানান, গত বৃহস্পতিবার তারা বাড়িতে আসছে। এবং আমাদের সাথে জগড়া হয়েছে। কিন্তু আমি তাদের ঘর পোড়া দেই না।

এবিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানা ওসি তদন্ত বাহার মিয়া বলেন, অগ্নিকান্ডের ঘটনা শুনে আমরা ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। এবিষয়ে একটি অভিযোগ হয়েছে। আমরা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

শেয়ার করুন