বাড়িতে কীভাবে অক্সিজেন প্রস্তুত করা যায়

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় বেসামাল হয়ে পড়েছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জনসংখ্যার দেশ ভারত। দেশটিতে লাফিয়ে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ।

ইতোমধ্যেই দেশটির বিভিন্ন হাসপাতালে অক্সিজেনের জন্য হাহাকার অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে গুগল সার্চ ইঞ্জিনে অনেক ভারতীয় খুঁজছেন, ‘বাড়িতে কীভাবে অক্সিজেন তৈরি করা যায়’, ‘কীভাবে অক্সিজেন তৈরি করা যায়’, ‘কীভাবে অক্সিজেন সিলিন্ডার তৈরি করা যায়’-এর মতো বিষয়গুলো। গুগল সার্চ ইঞ্জিনের পরিভাষায় ভারতে বিষয়টি বর্তমানে ‘ট্রেন্ডিং’।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) সকালে এই প্রতিবেদন লেখার সময় ইংরেজিতে ‘হাও টু’ লিখে সার্চ করতে গেলেই গুগল নিজে থেকে যে ক’টি বিকল্প দিচ্ছে, তার মধ্যে শুরুর দিকেই রয়েছে, ‘কীভাবে বাড়িতে অক্সিজেন তৈরি করা যায়’- এটি।

গুগলের এই বিকল্পগুলো স্থির হওয়ার অনেকগুলো শর্তের মধ্যে একটি হলো ‘সার্চ ভ্যালু’। নির্দিষ্ট সময় কোনো বিষয় (টপিক) কত বেশি সংখ্যক মানুষ খুঁজছেন, সেই বিষয়টির ওপর একটা মূল্য নির্ধারিত হয়। একেই বলা হয় ‘সার্চ ভ্যালু’। ‘বাড়িতে কীভাবে অক্সিজেন প্রস্তুত করা যায়’-এর ‘সার্চ ভ্যালু’ শুক্রবার ছিল ১০০। এক সপ্তাহ আগেও এর ‘সার্চ ভ্যালু’ ছিল ১০ থেকে ১৩।

যে রাজ্য থেকে অক্সিজেন বাড়িতে প্রস্তুত করার বিষয়ে সর্বাধিক সার্চ করা হয়েছে, সেই তালিকার ওপরে রয়েছে গুজরাট। তারপর মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ। একইভাবে ‘কীভাবে অক্সিজেন তৈরি করা যায়’ও গুগলে ‘ট্রেন্ডিং’ হয়েছে। যত সময় বাড়ছে, ততই মানুষ বেশি করে এই বিষয়টি খুঁজতে চাইছেন। ফলে এর ‘সার্চ ভ্যালু’ বাড়ছে।

গুগল সার্চ ইঞ্জিন যা দেখাচ্ছে, তাতে বর্তমানে গোটা ভারতের একটা ছবির আভাস পাওয়া যায়। অক্সিজেনের ঘাটতি মেটাতে অক্সিজেনের উৎপাদন বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পাশাপাশি অক্সিজেন সরবরাহের গতি বাড়াতে নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবন করার কথাও বলেছেন তিনি।

সূত্র: আনন্দবাজার।

10 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন