Screenshot 2

হাইমচরের মেঘনা নদীতে নিখোঁজ ৩ জেলের লাশ উদ্ধার

এ এম সাদ্দাম হোসেন, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট :

চাঁদপুর সদর উপজেলার ১৩ নং হানারচর ইউনিয়নের ১-২-৩ নং ওয়ার্ড মহিলা মেম্বার রাশিদা বেগমের ছোট ছেলে মোঃ আলমগীর হাওলাদার (৪২)সহ ৫ জন জেলে ২ টি নৌকা নিয়ে মাছ ধরতে গিয়ে আকষ্মিক ঝড়ের কবলে পরে গত ৪ এপ্রিল হাইমচরের মেঘনা নদীতে ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ হয়।

৫ এপ্রিল সোমবার বিকাল প্রায় সাড়ে ৪ টায় চাঁদপুর নৌ-ফায়ার স্টেশন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসও মোঃ সিদ্দিকুর রহমান এর নেতৃত্বে হাইমচর ফায়ার সার্ভিস-স্টেশন অফিসার অহিদুল ইসলামের প্রচেষ্টায় আকষ্মিক ঝড়ে নিখোজ হওয়া চাঁদপুর সদরের গোবিন্দিয়া গ্রামের লতিফ বেপারীর ছেলে মনছুর বেপারীর লাশ হাইমচর উপজেলার ৬ নং চরভৈরবী ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড গাজীনগর সংলগ্ন মেঘনা নদী থেকে উদ্ধার করে।ওই দিন বিকাল সাড়ে চারটায় নীলকমল পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা ভাসমানবস্হায় হানারচর ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য রাশিদা বেগমের ছোট ছেলে মোঃ আলমগীর হাওলাদার (৪২) ও একই এলাকার আনু দেওয়ানের ছেলে মোহাম্মদ আলী (৪০) এর লাশ উদ্ধার করে হাইমচর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

হাইমচর থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাহবুবর রহমান মোল্লা, নীলকমল নৌ পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ আঃ জলিল জানান, আমরা ঝড়ে নৌকা ডুবির ঘটনায় এ পর্যন্ত ৩ জন জেলের লাশ উদ্ধার করেছি। পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করেছি।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের পক্ষে চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ এবং এ এস পি সদর সার্কেল স্নিগ্ধা সরকার ও চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আবদুর রশীদ মৃতদের বাড়িতে গিয়ে পরিবাকে সান্তনা দেন। জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে প্রতিটি পরিবারকে লাশ দাফনের জন্য ১০ হাজার টাকা করে দেন।

নদীতে এখনো আরো দুজন জেলে নিখোঁজ রয়েছে। এরা হলো মদিনা মার্কেট এলাকার হানিফা মাল (৪৫) ও নন্দি দোকান এলাকার জাকির হোসেন (১৭)।

11 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন