dead killing logo

চারদিনের মাথায় লাশ হলেন নববধূ

চারদিনের মাথায় লাশ হলেন নববধূ। এ এক নির্মম ঘটনা। সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় এক নববধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ওই গৃহবধূর নাম সেনুয়ারা বেগম (২১)। তার বাবা উপজেলার দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়নের চতুর্ভুজ গ্রামের উমর আলী।

রোববার (২ মে) বিকালে উপজেলার দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়নের কাউকান্দি গ্রামে ওই নারীর স্বামীর বাড়ি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চার দিন আগে কাউকান্দি গ্রামের আব্দুল জলিল সুবলের ছেলে রায়হানের সঙ্গে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে সেনুয়ারার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তিনি স্বামীর বাড়িতেই ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, ঘটনার দিন গৃহবধূর স্বামী রায়হান ধান কাটার কাজে হাওরে ছিলেন। এ সময় শাশুড়িকে রান্নার কাজে সঙ্গে দিচ্ছিলেন তিনি। হঠাৎ শাশুড়ি অসুস্থতা বোধ করলে ঘরের একটি কক্ষে বিশ্রাম নিতে চলে যান।

দুপুরের দিকে স্বামীর বাড়ির লোকজন রান্নাঘরে গিয়ে ওই গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে তাহিরপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. নাজমুল হক ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ তরফদার বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি আত্মহত্যা। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।

 

শেয়ার করুন