chandpur report 2049

মেঘনা ধনাগোদা সেচ প্রকল্প বেড়ীবাঁধ পরিদর্শনে প্রধান প্রকৌশলী জহিরউদ্দিন আহম্মেদ

গোলাম নবী খোকন, বিশেষ প্রতিনিধি : দেশের অন্যতম সেচ প্রকল্প, মেঘনা ধনাগোদা সেচ প্রকল্প বন্যা নিয়ন্ত্রণ বেড়ীবাঁধ। এ বাধঁ সৃষ্টির পর দুই বার ভেঙ্গে যায় ১৯৮৭-৮৮ সালে। ভাঙ্গনের প্রায় ৩৩ বছর হল, এপর্যন্ত আর বড় ধরনের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয় নাই। এ ৩৩ বছরে মেঘনা ধনাগোদা সেচ প্রকল্পের চর্তুদিক ষাটনল, দশানী, মোহনপুর, নয়ানগর, এখলাশপুর, জহিরাবাদ, আমিরাবাদ, দক্ষিণ রামপুর, জনতা বাজার, চরমাছুয়া,গাজীপুর, পশ্চিম বাইশপুর, সিপাইকান্দি, ঠেটালীয়া, এনায়েত নগর, টরকী কালীপুর এ সমস্ত এলাকায় নদী ভাঙ্গন রোদে পানি উন্নয়ন বোর্ড কতৃপক্ষ কাজ করছেন।

এরপর ও কয়েকটি স্হান ঝুঁকিপূর্ণ বলে প্রতিয়মান হয় বলে সরজমিন রিপোর্টে। স্পটগুলি হলো টরকী, সিপাই কান্দি, ঠেটালীয়া, গাজীপুর, চরমাছুয়া, জনতা বাজার, আমিরাবাদ একলাশপুর ও ষাটনল।

এ দশটি পয়েন্ট ঝুঁকি পূর্ণ হলে ও পানি উন্নয়ন বোর্ড কতৃপক্ষ সিপাই কান্দি, ঠেটালীয়া, জনতা বাজার ও ষাটনল এ সমস্ত জায়গা চিহ্নিত করে ইতি মধ্যেই বড় আকারের বালি বর্তি জিও ব্যাগ ডাম্পিং করার বয়বস্হা গ্রহণ করবেন বলে জানান বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড প্রধান প্রকৌশলী জহিরউদ্দিন আহম্মেদ।

আজ ১৭ মে দুপুরে প্রকল্পের জনতা বাজার সংলগ্ন বেড়ীঁবাধেঁর ভাঙ্গন স্হান এলাকা পরিদর্শন করে উপরোক্ত কথা গুলো বলেন। তিনি আর ও বলেন জনতা বাজার এলাকায় প্রায় ৭০ মিটার জায়গা এফেক্ট। এটা সহ সিপাই কান্দি, ঠেটালীয়া ও ষাটনল এ ৩/৪ টি পয়েন্টে আমরা ইতি মধ্যেই কাজ করব ইনশাল্লাহ। এর পরে আমরা বসে থাকবোনা। প্রকল্পের আর ও কিছু জায়গা আমরা চিহৃিন্ত করেছি, আমরা পর্যায়ক্রমে কাজ করে যাব। তিনি আর ও বলেন শুধু তাই নয়, পরবর্তি ব্যবস্হা যাতে টেকসই হয়, সে ভাবেই আমরা প্রকল্প বেড়ীবাঁধ বাঁচানোর জন্য কাজ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। প্রকল্পবাসীকে আশ্বস্ত করতে চাই, আপনারা চিন্তামুক্ত থাকুন, আমরা সব সময় আপনাদের পাশে আছি থাকব ইনশাআল্লাহ।

তিনি বলেন, আপনাদের মাননীয় এমপি চাঁদপুর -২ আসনের সংসদ আলহাজ্ব মোঃ এ্যাড, নুরুল আমিন রুহুল বেড়ীঁবাধঁ ও নদী ভাঙ্গন রোদে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রাখছেন।

পরিদর্শনে আর ও উপস্হিত ছিলেন চাঁদপুর পওর সার্কেল তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ জাকির হোসেন, মেঘনা ধনাগোদা সেচ প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী মামুন হাওলাদার, পানি ব্যবস্হাপনা ফেডারেশনের সহ- সভাপতি সামছুউদ্দিন খাঁন, সাধারণ সম্পাদক সরকার মোঃ আলাউদ্দিন, এস ও জামাল হোসেন, মতলব উত্তর উপজেলা ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি আঃ রব, যুবলীগ নেতা ওয়াহিদুজ্জামান মুকুল,সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আঃ রহিম, মহানগর তাতীঁ লীগ নেতা ইব্রাহিম মিজি,বিশিষ্ট ব্যবসায়ী অলু দেওয়ান, মনির হোসেন, জুয়েল মীর ও যুবলীগ নেতা রিপন দেওয়ান। এ ছাড়াও ইলেকট্রনিকস ও পিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন