মডেল মসজিদ

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা মডেল মসজিদের উদ্বোধন

জাহাঙ্গীর আলম ইমরুল, কুমিল্লা ব্যুরো: ১০ জুন ২০২১
সারা দেশের ৫০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সাথে একযুগে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা মডেল মসজিদেরও উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীতে তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে সকাল সাড়ে ১০টায় এক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে মসজিদগুলোর উদ্বোধন করেন।

মুজিবর্ষ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলার প্রাণকেন্দ্র বিশ্বরোডে উদ্বোধন করা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন এই “মডেল মসজিদ”। সকাল সাড়ে ১০ টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্স এর মাধ্যমে নির্মাণাধীন ৫৬০ টি মডেল মসজিদের মধ্য থেকে সারাদেশে একযোগে ৫০ টি মডেল মসজিদ ও ইসলামি সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন করেন।
এরই ধারাবাহিকতায় দাউদকান্দি মডেল মসজিদ উদ্বোধনের মাধ্যমে নামায পড়ার জন্য সাধারণ মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা-১ আসনের সাংসদ ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভূঁইয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল ইসলাম খান, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম নয়ন, ভাইস-চেয়ারম্যান (সংরক্ষিত) রোজিনা বেগম, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সেলিম শেখ, বীর মু্ক্িতযোদ্ধ খোরশেদ আলম, গৌরীপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসেম সরকার, গোয়ালমারি ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলম ভুলু, সদর উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সালাম, ইলিয়টগঞ্জ উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান জসিমউদ্দীন প্রধান, এসআই নাজমুল হোসেন সুজন, প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর রকিবউদ্দিন রকিব ও পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান মিয়া প্রমুখ।
‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে দেশের সবকটি জেলা ও উপজেলায় ৫৬০টি দৃষ্টিনন্দন মসজিদ নির্মাণ করছে বর্তমান সরকার।

এই মসজিদগুলোতে ১৩টি বিশেষ সুবিধার মধ্যে মসজিদে হজ্জ যাত্রীদের প্রশিক্ষণসহ পবিত্র হজ্ব পালনের জন্য ডিজিটাল নিবন্ধনের ব্যবস্থা থাকবে।

অন্যন্য সুবিধাগুলোর মধ্যে রয়েছে- নারী ও পুরুষদের পৃথক ওজু ও নামাজ আদায়ের সুবিধা, প্রতিবন্ধি মুসলিমদের টয়লেটসহ নামাজের পৃথক ব্যবস্থা, ইসলামিক বই বিক্রয় কেন্দ্র, ইসলামিক লাইব্রেরী, অটিজম কর্ণার, ইমাম ট্রেণিং সেন্টার, ইসলামিক গবেষণা ও দীনি দাওয়া কার্যক্রম, পবিত্র কোরআন হেফজখানা, শিশু ও গণশিক্ষায় ব্যবস্থা, দেশি-বিদেশি পর্যটকদের আবাসন ও অতিথিশালা, লাশ গোসল ও কফিন বহনের ব্যবস্থা, ইমামের প্রশিক্ষণ, ইমাম-মুয়াজ্জিনের আবাসনসহ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে কর্মকর্তা কর্মচারীদের অফিসের ব্যবস্থা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই উদ্যোগকে বিশ্বে দৃষ্টান্ত বলে মনে করেছেন সবাই।
ইসলামের আদর্শের সঙ্গে মিল রেখে এবং জাতির পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে প্রধানমন্ত্রী দেশব্যাপী ৮ হাজার ৭২২ কোটি টাকা ব্যয়ে এই ৫৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণের কথা চিন্তা করেন। বিশ্বে এই প্রথম কোনো সরকার একসঙ্গে এই বিপুল সংখ্যক মসজিদ কমপ্লেক্স নির্মাণ করছে। ৪২০টি মডেল মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে এবং বাকিগুলোর নির্মাণকাজ শিগগিরই শুরু করা হবে।

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী ক্রমান্বয়ে সারাদেশে ৫৬০টি মসজিদ নির্মাণ করছে। যার ব্যয় হবে ৮ হাজার ৭২২ কোটি টাকা।

31 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন